অনিশ্চিত গণ্তব্যকে নিশ্চিত করুন

মাহফুজ আদনান :: অনিশ্চিত গণ্তব্য নিয়ে আমরা চিন্তিত থাকি । প্রত‌্যেকের একটি নিশ্চিত গণ্তব্য থাকে । সেটা নিয়ে আমরা ব্যস্ত থাকি । যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলা অনেকের পক্ষে সম্ভব হয় না । তাহলে নিজেই নিজের রাস্তা তৈরি করতে হয় । সবাইকে নিজস্ব জগতে ব্যস্ত থাকতে হয় । এটাই বাস্ববতা । এরপরে নিজের জগতে বাইরে থেকে চেষ্টা করতে হয় একে অন্যকে সহযোগীতার কথা । আপনি যদি সহযোগীতাপরায়ণ না হন তবে আপনাকে অনিশ্চিত পথে হাটতে হবে । অনিশ্চিত গন্তব্য বলতে আমরা বুঝে নিতে পারেন নিজের অস্তিত্বকে হারিয়ে ফেলা । নিজের অস্তিত্বকে কখনো বিলীন হতে দেবেন না । চেষ্টা চালিয়ে যান । তাহলে গন্তব্য খুজে পাবেন । আজকাল আমরা অনিয়ন্ত্রিত টেনশনে থেকে নিজেই নিজের খেই হারিয়ে ফেলি । এজন্য আমাদের পারিপাশ্বিক পরিবেশ দায়ী । কেননা আমরা আমাদের কৃতকর্মের জন্য ভালো মন্দ সময়ের সম্মুখিন হই । এজন্য মন্দ সময়ে নিজেকে শক্ত রাখতে হয় । হা পিত্যেষ বা অশান্তি আমাদের কৃতকর্মের জন্য আসে সেজন্য সবসময় নিজেকে বুঝিয়ে নিতে হয় । একদিন আমার সময় আসবে এই অসময়কে জয় করতেই হবে । জয়ী হবার তীব্র আকাঙ্খা থাকতে হবে তাহলে আপনি জয়ী হবেন । অনেক সময় পারিপাশ্বিক পরিবেশ আমাদের মনকে নাড়া দেয় সেজন্য আমরা আমাদের মেধাকে কাজে লাগাতে পারি না । ট্রাই করতে হবে পজিটিভ থিংকিং করতে হবে । তাহলে ই আপনি জয়ী হবেন । নিজের গন্তব্যকে স্থির রাখুন । সময়কে সঠিক ভাবে কাজে লাগান । যুগে যুগে অনেক মনীষি অনেক কিছু বলে গেছেন । তাদের সময় আর আপনার সময়ের পার্থক্য উপলদ্বি করুন । তাঁরা একসময় বেচে ছিলেন । আর আপনি কি করছেন সেটা ভাবতে হবে । আপনার কাজ ই আপনাকে বাচিয়ে রাখবে । এজন্য একাগ্রচিত্তে সাধনা করে যান । আর যে কোন কাজকেই ছোট করে দেখবেন না । তাহলে ই আপনি সফলকামী । আপনার সঠিক কাজের প্রয়োগই আপনাকে জয়ী করে তুলবে ।

লেখক ::: সাংবাদিক ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.