‘অবর্ণনীয় নিষ্ঠুরতার নীতি অনুসরণ করছে ট্রাম্প’

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত দুই বছর শুধু মার্কিন গণতন্ত্রের ওপর আঘাতই হেনেছেন। তাই আমেরিকানদের উচিত গণতন্ত্র উদ্ধার করতে লড়াই চালিয়ে যাওয়া। এমনই আহ্বান জানিয়েছেন হিলারি ক্লিনটন।

হিলারি লিখেছেন, রিপাবলিকানরা আমাকে পরাজিত করে সীমান্তে অভিবাসী পরিবারগুলো আলাদা করাসহ অবর্ণনীয় নিষ্ঠুরতার নীতি অনুসরণ করছে। ট্রাম্প এবং তার সহযোগীরা এমন সব ঘৃণ্য কাজ করছেন, যেগুলো ঠিক করা প্রায় অসম্ভব।

তিনি লিখেছেন, আমি মনে করি বিন্দুর মতো কিছু একটা আমাদের হতবুদ্ধি করে রেখেছে। তাই আমাদের চোখ বলের ওপর পড়ছে না। আর বলটি হলো আমেরিকান গণতন্ত্রকে রক্ষা করা। নাগরিক হিসেবে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব এটি। কারণ এখন আমাদের গণতন্ত্র সঙ্কটের মুখে।

রবিবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের সাময়িকী দ্য আটলান্টিকে প্রকাশিত এক নিবন্ধে হিলারি এসব কথা লিখেছেন বলে জানিয়েছে দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট।

দেশটির গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নেয়া এই ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী লিখেছেন, আমি ‘সঙ্কট’ শব্দটি হালকা হিসেবে ব্যবহার করিনি। রাস্তাগুলোতে কোনও ট্যাংক নেই। কিছু কিছু ক্ষেত্রে প্রশাসনের নৃশংসতা ও অযোগ্যতা একেবারেই অস্বাভাবিক।

তিনি লিখেছেন, আমাদের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান ও প্রথাগুলো অবরুদ্ধ। তাই এগুলোকে মুক্ত করতে আমাদের যা যা করা দরকার, সেগুলো করতে হবে। ট্রাম্পের প্রশাসনের বিরুদ্ধে হারিকেন মারিয়াতে বিধ্বস্ত পুয়ের্তো রিকো দ্বীপের প্রতি অবহেলা দেখানোর অভিযোগও এনেছেন তিনি।

২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর থেকে ট্রাম্প এবং তার নীতির সমালোচনা করে আসছেন হিলারি। অন্যদিকে রাজনৈতিক সমাবেশগুলোতে ট্রাম্প তাকে পরাজিত বলে উল্লেখ করছেন। এছাড়া পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনকালে হিলারির নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ ও কার্যক্রম তদন্ত করার আহ্বান জানান তিনি।