Mon. Apr 6th, 2020

BANGLANEWSUS.COM

-ONLINE PORTAL

অবৈধ বালু উত্তোলন ঃ নিঃস্ব হচ্ছে কৃষক

1 min read

 

সুজানগর (পাবনা) :
সুজানগর উপজেলার পদ্মা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে অসময়ে নদী গর্ভে বিলীন হচ্ছে শত শত বিঘা আবাদী জমি। সরকারিভাবে এসব বালু উত্তোলন নিষেধ থাকলেও স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ও একশ্রেনীর অসাধু বালু ব্যবসায়ী সরকারকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে নদী তীরবর্তী সুজানগর পৌরসভার চরভবানীপুর,চরসুজানগর,হাজারবিঘা,ভাঁয়না ইউনিয়নের লক্ষীপুর,চরবিশ্বনাথপুর সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা এবং সদর উপজেলার চরতারাপুর সহ নদী তীরবর্তী বিভিন্ন এলাকা থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে চলেছেন অবাধে। আর এর ফলে অসময়ের পদ্মা নদী ভাঙ্গনে কৃষি জমি ব্যাপকভাবে নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে। প্রতিদিনই ভাঙছে এ সকল অঞ্চলের টমেটো, বেগুন, পেয়াজ, বিভিন্ন ধরনের সবজি সহ অন্যান্য নানা ধরনের ফসলি জমির ক্ষেত। নদীগর্ভে ফসল নষ্ট হওয়ায় আর্থিক ক্ষতির মধ্যে পরেছেন এ অঞ্চলে কৃষকেরা। এছাড়া সরকার হারাচ্ছে কোটি কোটি টাকার রাজস্ব। নদী ভাঙ্গন রোধে দ্রুত সরকারের হস্তক্ষেপ চাচ্ছেন ভাঙ্গন কবলিত ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকেরা। সুজানগর পৌরসভার চর মানিকদির এলাকার কৃষক জবানী হোসেন কান্না জড়িত কন্ঠে জানান অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে তার প্রায় ৫০ বিঘা আবাদি জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে । হেলাল উদ্দিন নামে আরেক জন জানান প্রকাশ্যে এভাবে পদ্মা নদী থেকে বালু উত্তোলন হলেও এটি বন্ধে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন কোন কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করছেনা বলে অভিযোগ করেন।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার কোথাও বালুর ইজারা নেই। কিন্ত আইনের কোন তোয়াক্কা না করেই অবৈধভাবে বালু ব্যবসায়ীরা বালু উত্তোলন করছে। আর এ সকল বালু সুজানগর পৌরসভার বিভিন্ন পাকা সড়ক সহ উপজেলার অন্যান্য সড়ক দিয়ে ভোর রাত হতে ট্রাক, ট্যাক্টর, দিয়ে বিভিন্ন স্থানে বালু পৌছে দেয়া হয়। এতে করে ভারী যানচলাচলে রাস্তার অবস্থাও নাজুক হয়ে পড়েছে।
বালুবোঝাই ট্রাক চলাচলের কারণে রাস্তাগুলো চলাফেরার অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। স্থানীয় জনগণ বালু উত্তোলণকারীদের বাধা দিলে তারা মিথ্যা মামলা দায়ের সহ বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছে। স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবী বাংলাদেশ সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের বালু তোলা বন্ধ করে প্রাকৃতিক পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় এগিয়ে আসবেন।
এ বিষয়ে (১৬ ফেব্রয়ারী) রবিবার সুজানগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতিঃদাঃ) আসিফ আনাম সিদ্দিকী জানান আমি কয়েকদিন হলো সুজানগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতিঃদাঃ) হিসাবে দায়িত্বভার গ্রহন করেছি। তবে অবৈধভাবে পদ্মা নদী থেকে বালু উত্তোলনকারী যেই হোক তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে আইনানুগ প্রয়োজনীয় কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।

Copyright © Banglanewsus.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.