Fri. Dec 13th, 2019

BANGLANEWSUS.COM

-ONLINE PORTAL

আবারো আসছে মটোরোলার ফোল্ডিং ফোন

1 min read

এক সময় মটোরোলার ফোল্ডিং ফোন খুবই জনপ্রিয় ছিল। আর আবারো ফোল্ডিং ফোন বাজারজাত করার মাধ্যমে নিজেদের সেই সোনালী অতীত যেন ফিরে পেতে চাইছে মটোরোলা।

 

বেশ কয়েক মাস ধরেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল যে, আবারো ফোল্ডিং ফোন তৈরি করতে যাচ্ছে বিশ্ববিখ্যাত ব্র্যান্ড মটোরোলা। আর অবশেষে সেই বহুল প্রতীক্ষিত ফোনটির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিল কোম্পানিটি। আগামী ২৬ ডিসেম্বর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ফোনটির প্রি-অর্ডার নেয়া শুরু হবে। ৯ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে ভেরিজন এবং ওয়ালমার্ট এর স্টোরগুলোতে এবং অনলাইনে এর আনুষ্ঠানিক বিক্রি শুরু হবে। ফোনটির প্রারম্ভিক মূল্য ধরা হয়েছে ১৪৯৯ ডলার।

 

নতুন এই মটোরোলা রেজার ফোনটি একটি ফ্লিপ ফোন। এধরনের ফোনই অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস স্মার্টফোন বাজারে আসার পূর্বে আধিপত্য করেছিল। যাইহোক, নতুন এই ভাঁজ করা ফোনটিতে একটি আইকনিক ডিজাইন দেয়ার জন্য কাটিং-এজ ডিসপ্লে প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। আপনি যখন ফোনটি ফ্লিপ করবেন তখন আপনাকে এটি একটি ফ্রন্ট দিয়ে স্বাগত জানাবে। তবে এর স্ক্রিনের নিচের অংশে কোনো কিবোর্ড নেই। স্যামসাং গ্যালাক্সি এবং হুয়াওয়ে মেট এক্স যদিও অনুভূমিকভাবে ভাঁজ করা যায়, নতুন এই মটোরোলা রেজারটি উল্লম্বভাবে ভাঁজ করা যায়।

 

ডিভাইসের অভ্যন্তরে কেবলমাত্র একটি ডিসপ্লে রয়েছে বলে মটোরোলা বাইরের আরো একটি ডিসপ্লে যুক্ত করেছে যাতে ব্যবহারকারীকে কেবল নোটিফিকেশনগুলো পড়ার জন্য বা বেসিক কাজগুলো করার জন্য ফোনটি ক্রমাগত খোলা রাখতে না হয়। তবে বাইরের এই ডিসপ্লেটি খুবই ছোট এবং রেজ্যুলেশনও অনেক কম। সুতরাং আপনি আধুনিক স্মার্টফোনের সাথে সংযুক্ত বেশিরভাগ কাজের জন্য এটি ব্যবহার করতে পারবেন না। নোটিফিকেশন দেখা, সেলফি তোলা, গান শোনা বা গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করার মতো বেসিক কাজগুলো করার জন্যই মূলত মটোরোলা এটি তৈরি করেছে।

 

প্রতিষ্ঠানটি নিশ্চিত করেছে খুব শিগগির ফোনটি ভারতে আসছে। এছাড়াও পরবর্তীতে অস্ট্রেলিয়া, লাতিন আমেরিকা এবং এশিয়ার অন্যান্য দেশের বাজারেও বাজারজাত করা হবে।

Copyright © Banglanewsus.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.