আরিফের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ…

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে নগরীজুড়ে পলিথিনে মুড়িয়ে টানানো হয় হাজার হাজার প্রচারণা পোস্টার। তবে নির্বাচন শেষে হওয়ার দুইদিনের মাথায় বুধবার নিজের পোস্টার সরিয়ে নেয়ার কাজ শুরু করেছেন বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরী। সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে তার জয় প্রায় নিশ্চিত হয়ে আছে। এখন আনুষ্ঠানিকতাই শুধু বাকি।

 

বুধবার বিকেলে নগরীর কুমারপাড়াস্থ নিজের বাসার সামনে খুঁটির সাথে বাঁধা নিজের পোস্টার কাঁচি দিয়ে কেটে পোস্টার সরানোর কাজ শুরু করেন আরিফুল হক চৌধুরী। পরে নগরীর অন্যান্য এলাকায়ও শুরু হয় নির্বাচনী পোস্টার সরানোর কাজ। আরিফের নিজস্ব শ্রমিক এ কাজে নিয়োজিত রয়েছে। তবে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা শাখার সদস্যরাও পোস্টার সরানোর কাজে সহায়তা করছেন।

 

এসময় আরিফুল হক চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ১৯৬ জন প্রার্থীর হাজার হাজার পলিথিনে মোড়ানো পোস্টারে ছেয়ে গেছে পুরো নগরী। এসব পোস্টার ও পলিথিন পাশের ড্রেনে গিয়ে পড়লে বিপর্যস্ত হবে নগরীর পুরো ড্রেনেজ ব্যবস্থা। তাই নির্বাচন শেষ হলেও তা সরানোর কোন উদ্যোগ না নেয়ায় তিনি নিজেই এ কাজে নেমেছেন।

 

আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, জয়-পরাজয় বড় কথা নয়। সমৃদ্ধ ও সুন্দর সিলেট গড়তে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। এই পোস্টার ও পলিথিন ড্রেনে গিয়ে পড়লে পুরো নগরীর জলাবদ্ধতার কবলে পড়বে। তাছাড়া পরিবেশও চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবে। তিনি সকল প্রার্থীকে নগরীর স্বার্থে নিজ নিজ পোস্টার সরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানান।

 

এসময় বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম, সিলেট জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতা সিদ্দিকী, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মাহবুবুল হক চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.