ইউরোপে যাওয়ার পথে নিখোজ নবীগঞ্জের টগবগে এই যুবক

মুজাহিদ চৌধুরী, নবীগঞ্জ :সুন্দর ভবিষ্যত ও সোনালি দিনের স্বপ্ন নিয়ে অবৈধভাবে ইউরোপ যাওয়ার নিখোজ হয়েছেন নবীগঞ্জের আবু তাহের নামে এক যুবক। ইউরোপ যাওয়ার পর ৫ দিন অতিবাহিত হলেও কোন খোজ না পেয়ে নিহতের আশংকা করছেন তার পরিবারের লোকজন।

সে নবীগঞ্জ উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের মুড়ার পাঠলী গ্রামের আতাব উল্লার পুত্র। সোমবার দুপুরে তার বাড়িতে খবর আসে সড়ক দূর্ঘটনায় সে মারা গেছে। মূহুর্তেই এমন খবর ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। তার বাড়িতে শুরু হয় কান্না ও মাতম।

সরেজমিনে তার পিতাসহ আত্মীয় স্বজনদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, স্বপ্নের দেশ ফ্রান্সে যাবে এমন স্বপ্ন নিয়ে গত ১০ অক্টোবর বাড়ি থেকে রওয়ানা দেয় সে। একই উপজেলার দেওপাড়া গ্রামের দালাল ফজলু মিয়ার মাধ্যমে ৫ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ওই দিন বিকেল ৪ টায় একটি ফ্লাইটে ইরানে যায় আবু তাহের। ইরানে কয়েক দিন থাকার পর গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় আরেক দালালের মাধ্যমে তুরস্ক যাওয়ার উদ্যোশে প্রাইভেট কার যোগে রওয়ানা দেয় আবু তাহের। এটাই ছিলো পরিবারের জানা শেষ খবর। এর পর থেকেই পরিবার কিংম্বা আত্মীয় স্বজনের সাথে আবু তাহেরের কোন যোগাযোগ হয়নি। প্রায় ৫ দিন যাবৎ সে নিখোঁজ থাকায় চরম হতাশায় ভূগছিলেন তার পরিবারের লোকজন।

এদিকে, গতকাল সোমবার দুপুরে ইরান থেকে জনৈক এক লোক আবু তাহেরের বাড়িতে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে জানায় আবু তাহের ইরান থেকে প্রাইভেট কার যোগে তুরস্ক যাওয়ার পথে সড়ক দূর্ঘটনায় মারা গেছে। এ খবরটির সত্যতা যাচাই না করেই আবু তাহেরের বন্ধু-বান্ধব ও স্বজনরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন শোকাবহ পোষ্ট করেন। এরপর থেকে তার পরিবারের লোকজনের মধ্যে নিহতের আশংকা বিরাজ করছে। শুরু হয়েছে কান্না-মাতম।

শেষ খবর পর্যন্ত জানা গেছে ইরানের রাজধানী তেহরান থেকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তিকে দুর্ঘটনাস্থল ইরানের শাহরিয়ার হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত আবু তাহেরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি।