এবার ফ্রিডম অব ডাবলিন অ্যাওয়ার্ড হারাচ্ছেন সু চি

এবার ফ্রিডম অব ডাবলিন অ্যাওয়ার্ড হারাচ্ছেন মিয়ানমারের ডি ফ্যাক্টো নেত্রী অং সান সু চি। শান্তিতে নোবেল জয়ী এই নেত্রীকে দেয়া সম্মাননা প্রত্যাহার করে নিতে ইতোমধ্যেই ভোট দিয়েছেন ডাবলিনের কাউন্সিলররা। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর সেনাবাহিনীর অত্যাচার-নির্যাতনের ঘটনায় সু চির নীরব অবস্থান এবং সেনাবাহিনীর প্রতি তার সমর্থনকে কেন্দ্র করেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। খবর দ্য গার্ডিয়ান।

 

রাষ্ট্রীয় প্রচারমাধ্যম আরটিইর এক খবরে জানানো হয়েছে, সু চির সিটি অব ডাবলিন অ্যাওয়ার্ড প্রত্যাহারের পক্ষে ভোটে ৫৯ জনই নিজেদের সমর্থন জানিয়েছেন, অপরদিকে এর বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন দু’জন।

 

রোহিঙ্গা মুসলিমরা বহু বছর ধরেই মিয়ানমারে বাস করছেন। বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠতার দেশটিতে রোহিঙ্গাদের অবৈধ বাঙালী

অভিবাসাী বলে অভিহিত করে। রোহিঙ্গাদের বিশ্বের সবচেয়ে নিপীড়িত সংখ্যালঘু সম্প্রদায় । চলতি আগস্টে সহিংসতা শুরুর আগে রাখাইনে প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা বাস করত। কিন্তু সরকার এই লোকজনকে নিজেদের দেশের নাগরিক হিসেবে স্বীকৃতি দেয় না।

 

 

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিগত নিধনের অভিযোগ এনেছে মানবাধিকার সংগঠনগুলো। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, সেনাবাহিনী তাদের গ্রামে ঢুকে বাড়ি-ঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে, লোকজনকে গুলি করে হত্যা করেছে, নারীদের ধর্ষণ করেছে। সেনাদের নির্যাতন থেকে বাঁচতে নিজেদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছেন তারা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.