এবার সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে পারবেন সৌদি নারীরা

নারীরা এখন থেকে সৌদি আরবের সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে পারবেন বলে দেশটির জেনারেল সিকিউরিটি বিভাগ ঘোষণা দিয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে দেশটির রাজধানী রিয়াদসহ মক্কা, আল-কাসিম ও আল-মদিনার নারীরা এই সুযোগ পাবেন।

 

সৌদি আরবের ইংরেজি দৈনিক আল আরাবিয়া এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, যে নারীরা সেনাবাহিনীতে সৈনিকপদে আবেদন করবেন তাদের অবশ্যই সৌদি বংশোদ্ভূত ও সৌদিতে বেড়ে উঠতে হবে। তবে সরকারি চাকরিতে বিদেশে কর্মরত কর্মকর্তাদের সন্তান যারা বিদেশে পিতার-মাতার সঙ্গে বসবাস করছেন, তারাও আবেদন করতে পারবেন।

 

চাকরিতে বয়সের সর্বোচ্চসীমা ২৫ থেকে ৩৫ বেঁধে দেয়া হয়েছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা কমপক্ষে উচ্চ-মাধ্যমিক পাস হতে হবে।

 

 

 

চাকরিতে নিয়োগ পাওয়ার আগে আবেদনকারী নারীদের প্রাথমিক পরীক্ষা, সাক্ষাৎকার ও মেডিক্যাল চেকআপ উতড়ে যেতে হবে। এছাড়া আবেদনকারী নারীদের ভালো আচরণের সনদপত্র থাকতে হবে। এছাড়া সরকারি খাত ও সেনাবাহিনীতে কর্মরত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন না।

 

সৌদি গ্যাজেট বলছে, বিদেশি নাগরকিদের যে নারীরা বিয়ে করেছেন তারাও আবেদনের অযোগ্য বিবেচিত হবেন।

 

যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সৌদি নারীদের এগিয়ে নিতে দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ব্যাপক সামাজিক ও অর্থনৈতিক সংস্কারের লক্ষ্যে ভিশন-২০৩০ হাতে নিয়েছেন। তেল নির্ভর অর্থনীতি থেকে বেরিয়ে আসার লক্ষ্যে এ সংস্কার পরিকল্পনা করেন যুবরাজ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *