Sun. Sep 15th, 2019

BANGLANEWSUS.COM

-ONLINE PORTAL

কানাডায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বনভোজন

1 min read

কানাডার অন্টোরিওতে অনুষ্ঠিত হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বনভোজন।

 

স্থানীয় সময় ৬ জুলাই অন্টোরিও রাজ্যের হ্যামিল্টন দ্বীপে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই  অ্যাসোসিয়েশন অব কানাডা ইনক এর উদ্যোগে ওই বনভোজন অনুষ্ঠিত হয়।

 

বার্ষিক এই বনভোজনে গ্রীস্মের তীব্র তাপদাহ  উপেক্ষা করেই যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্থান ,মন্ট্রিয়ল , অটোয়া , পিটারবোরো , কিচেনার , গুয়েল্প , মিল্টন সহ দূরদূরান্ত থেকে ছুটে  এসেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষকরা।

 

 

বিপুল সংখ্যক মানুষের কারণে বনভোজনস্থল পরিণত হয়ে উঠে কানাডার বুকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক ক্যাম্পাসে।  সবাই মেতে উঠে আড্ডা আর খোশ গল্পে।

দিনভরের নানান জমকালো অনুষ্ঠানসূচিতে ছিল পিকনিক- ২০১৯ এ।

 

সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহজালাল হল, শাহ আমানত হল, আলাওল হল  এবং ‘এএফ রহমান হল’ নামে চারটি বাস ছেড়ে যায় ডানফোর্থের শপার্স ওয়ার্ল্ড লোকেশন থেকে এবং ‘সামসুন্নাহার হল’ নামের আরেকটা বাস ছেড়ে যায় ইটবিককের আলবিওন মল থেকে।

 

সকালের নাস্তায় ছিল এগ -চিজ স্যান্ডউইচ, হাসব্রাউনি আর জুস।

 

 

এবারের পিকনিক আয়োজকদের অনেকগুলো সফলতার মধ্যে অন্যতম হল যথাসময়ে বাস ছাড়া।  সকাল সাড়ে ১০টার মধ্যে সব বাস পিকনিক স্পটে চলে আসে।  গরম গরম চা আর চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী  ‘বেলা’ বিস্কুট দিয়ে বরণ করা হয় সবাইকে।  এরপর পরই সবাই ছুটে যায় বালিকাময় বিচের টানে – স্বচ্ছ সুশীতল পানিতে নেমে পড়েন অনেকেই।

পুরো অনুষ্ঠানটি বিভিন্ন পর্বে বিভক্ত ছিল। শুরুতে সবার জন্যে খেলাধুলার পর্ব।  স্পোর্টস সেক্রেটারি নাসিমা বেগম লাভলীর নেতৃত্বে এ পর্বে সবার জন্যে ছিল মজাদার সব আয়োজন। এই পর্বে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ছিল মহিলাদের পিলো পাস্।  নাসিমাকে যারা সহযোগিতা করেছেন তারা হলেন যথাক্রমে – হুমায়ন কবির , রফিকুল ইসলাম ,মোহাম্মদ আজম , স্বপন নাথ এবং জসিম উদ্দিন আনসারী।

 

দুপুর ২টার দিকে হয় মধ্যাহ্নভোজ এবং চলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

 

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন মুক্তা পাল , আব্দুল বাসিত , মেহজাবিন, ইউসা , সিরাজী।

 

সুরের লহরী নিয়ে সুদূর অটোয়া থেকে ছুটে আসছেন  অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের শিক্ষার্থীদের পরিচিতমুখ অঙ দা এবং নার্গিস আপা।  তাদের পরিবেশনা ছিল খুবই উপভোগ্য।  অসাধারণ সব পরিবেশনায় পুরো অনুষ্ঠান মাতিয়ে রেখেছিলেন চবির প্রাক্তন গ্রাজুয়েট মারুফ। এই পর্ব পরিচালনায় ছিলেন সব্যসাচি চক্রবর্তী এবং সাজ্জাদ হোসেন।

 

 

বনভোজনের অন্যতম আকর্ষণীয় পর্ব ছিল কানাডা ডে উপলক্ষে চুয়াক (CUAAC) কর্তৃক প্রথম বারের মত আয়োজিত ছোটদের জন্যে ড্রয়িং প্রতিযোগিতা।  দুই দলে বিভক্ত প্রায় ৫০ এর বেশি ছেলেমেয়ে অংশ নেয় এ প্রতিযোগিতায়।

আঁকিয়েদের অঙ্কন সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে  এবং বিচারকদের প্রশংসা অৰ্জন করেছে ভীষণভাবে।  বিচারক ছিলেন শাহাদাৎ হোসেন, রেবেকা সুলতানা এবং ফাইন আর্টস এর প্রাক্তন গ্রাজুয়েট রওশন ইসলাম। পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন সংগঠনের সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা কানিজ ফাতেমা এবং ট্রেজারার সাজ্জাদ হোসেন।

 

অনুষ্ঠানটি শেষ হয় সুধান রায়ের পরিচালনায় ল্যাফল ড্র এর মধ্য দিয়ে।  সাথে ছিল ঝালমুড়ি আর পতেঙ্গার তরমুজের আমেজ। সহযোগিতায় ছিলেন বিশ্বজিৎ পাল এবং মানস ধর।

 

 

পরিশেষে সংগঠনের সভাপতি বাহাউদ্দিন বাহার  ও দূরদর্শী সাধারণ সম্পাদক তাপস ভট্টাচার্জ উপস্থিত সবাইকে অনুষ্ঠানে আসার জন্যে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আয়োজকরা আগামী অনুষ্ঠান গুলোতেও এই ভাবে অংশ নিয়ে অনুপ্রাণিত করার আহ্বান জানান। সেই সাথে অত্যন্ত সফল, সুশৃঙ্খল এবং উপভোগ্য অনুষ্ঠান আয়োজনের পেছনে যারা প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে সহযোগিতা, শ্রম এবং সময় দিয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

 

বিশেষভাবে হ্যামিলটন অঞ্চলের আঞ্চলিক প্রতিনিধি এমা দে-র অক্লান্ত শ্রম আর সময়ের জন্যে ধন্যবাদ জানান।  যারা আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

Copyright © Banglanewsus.com All rights reserved. | Developed By by Positive it USA.

Developed By Positive itUSA