কানেক্টিভিটি বাড়াতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীর তৎপরতা

 

মোঃ আব্দুল কাইয়ুম : আকাশচুম্বি সপ্ন আর বুকভরা আশা নিয়ে প্রতিদিনই দেশ ছেড়ে বাংলাদেশীরা পাড়ি জমাচ্ছেন পৃথিবীর নানা প্রান্তে । যাদের কঠুর শ্রম আর মেধার বিনিময়ে বাংলাদেশ নামক স্বদেশ ভুমির স্বণির্বরতার জন্য সর্বোচ্ছ পরিমানে রেমিটেন্স আহোরিত হয়ে দেশের অর্থ ভান্ডার করছে সমৃদ্ধ। প্রবাশে বাংলাদেশীরা বিভিন্ন পেশায় যুক্ত থেকে প্রতিনিয়ত সম্মান বয়ে আনছে পরিবার , সমাজ আর রাষ্ট্রের জন্য। কেউ যুক্ত উচ্চ শিক্ষায়, কেউবা আবার ব্যবসা বাণিজ্য, সরকারি বেসরকারী চাকুরী করে উন্নত জীবন গড়ার আশায় প্রতিনিয়ত লড়াই সংগ্রাম করছেন । এসব পেশার পাশাপাশি উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে অনেকে আবার তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন উদ্ভাবনী কর্মকান্ড পরিচালনা করে বিদেশের মাঠিতে স্বদেশের পতাকার সম্মান অক্ষুন্ন রেখেছেন অব্যাহত ভাবে।

 

ইউরুপ আমেরিকা , আফরিকা মহাদেশ, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থান করছেন বাংলাদেশী প্রবাসীরা। এসব প্রবাসী নানা পেশায় যুক্ত থেকে সম্মান বয়ে আনছেন নিজ দেশের জন্য। সপ্নের দেশ আমেরিকায় প্রায় ২ লক্ষেরও বেশি বাংলাদেশী প্রবাসী বসবাস করছেন।

 

এসব প্রবাসী বাস করছেন পরিবার পরিজন নিয়ে। আমেরিকার নিউ ইয়র্ক ছাড়া অন্য ষ্টেট বোষ্টন, ফ্লোরিডা, মিশিগান, আটলান্টা, ক্যালিফোর্নিয়া, টেস্কাস, ভার্জিনিয়া,শিকাগো, ডালাস সহ নানা ষ্টেট ও নানা ছোট বড় শহরে প্রবাসীরা থাকেন নিজেদের পরিবার পরিজন নিয়ে।

 

তাদের মধ্যে অনেক বাংলাদেশী আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাশা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত বিমান নির্মাণ সংস্থা বুয়িং , বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা, চিকিৎসা সেবা, ব্যবসা বাণিজ্য সহ নামকরা প্রতিষ্ঠান সমূহে কাজ করে অনবরত সম্মান বয়ে আনছেন স্বদেশের জন্য। বিশাল এই দক্ষ কমিউিনিটির মধ্যে সহজতর যোগাযোগ স্থাপনের জন্য বাংলাদেশী কমিউনিটির নানা উদ্যেগ সবসময়ই প্রশংসার দাবিদার ।

 

আমেরিকায় অবস্থান করা বিশাল বাংলাদেশী কমিউনিটিদের অনেকেই অবাদ তথ্য প্রবাহের যোগে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে নিজেদের মধ্যে কানেক্টিবিটি বাড়াতে কাজ করছেন। তাদেরই একজন বাংলাদেশী উচ্চ শিক্ষায় গ্র্যাজুয়েশন করা মেধাবী শিক্ষার্থী ও উদ্যেক্তা আহসান আহমেদ পাবেল। জ্ঞান অর্জন আর আর উন্নত জীবন গড়ার সপ্নিল আকাঙ্খা নিয়ে বাংলাদেশী এই শিক্ষার্থী তরুণ ২০১৩ সালে সপ্নের দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি যমান। কম্পিউটার বিজ্ঞান বিষয়ে উচ্চতর গ্রাজুয়েশন সমাপ্ত করার পর নিজের মেধা আর মননকে কাজে লাগিয়ে এখন তার মনে সপ্ন দানা বাঁধে সেদেশে অবস্থান করা সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থান করা বিশাল বাংলাদেশী কমিউনিটির মধ্যে সহজতর যোগাযোগ স্থাপনে অনলাইন সহ তথ্য প্রযুক্তি সেবার মাধ্যম একই ফ্লাটফর্মে যুক্ত করা।

যেহেতু বর্তমান বিশ্বে মানুষে মানুষে যোগাযোগের জন্য তথ্য প্রযুক্তি হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। তাই গুরুত্বপূর্ন এই মাধ্যমে বাংলাদেশী তরুণ শিক্ষার্থী উন্নত সফটওয়্যার নির্মাণ সহ তথ্য প্রযুক্তির নানা মাধ্যম নিয়ে কাজ করছেন প্রতিনিয়ত। তার এসব কাজের মধ্যে অনলাইনে বাংলাদেশী প্রবাসীদের জন্য সহজ ভাবে স্বাস্থ্য সেবা, রিয়েল এস্টেট , আইনী সহযোগিতা, কেনাকাটা সহ বিভিন্ন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, যোগাযোগ, তথ্য প্রযুক্তিসহ নানা সেবা দ্রুত পেতেpavelist.comনামে একটি ওয়েব পোর্টাল নির্মান করেছেন। তার এই ওয়েব পোর্টালের মাধ্যমটি ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। ইউরুপ-আমেরিকাতে বসবাসরত বাঙ্গালীরা এই ওয়েব সাইটটির মাধ্যমে সহজেই নানা সেবা পাচ্ছেন বলে জানান ওয়েব সাইটটির নির্মাতা ও বাংলাদেশী আমেরিকান শিক্ষার্থী আহসান আহমদ পাবেল।

 

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নাজিরাবাদ ইউনিয়নের উদারাই গ্রামের আব্দুল মালিক বাহার এর পুত্র আহসান আহমদ পাবেল ২০১৩ সালে কম্পিউটার সাইন্স এর উপরে উচ্চ শিক্ষার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। সেখানে এসে মনরো কলেজ থেকে কম্পিউটার সাইন্স এ গ্রাজুয়েশন শেষ করে বর্তমানে ভার্জিনিয়াতে বসবাস করে তথ্য প্রযুক্তি নিয়ে একজন উদ্যেক্তা হিসেবে সফলতার সঙ্গে কাজ করছেন বাংলাদেশী মেধাবী এই তরুণ শিক্ষার্থী।

 

এ প্রতিবেদকের সাথে মুঠোফোনে আলাপকালে আহসান আহমদ পাবেল জানান, আমি মূলত এখানে এসে যে ব্যাপারটি আমার কাছে গুরুত্বপুর্ণ মনে হচ্ছে সেটি হলো আমেরিকার নিউইয়র্কসহ বিভিন্ন রাজ্যে বাংলাদেশী বিশাল কমিউিনিটি নানা পেশায় যুক্ত । অনেকেই বিভিন্ন সেবা পেতে বিরম্বনার মুখোমুখি হন, মূলত তারা যেন সহজে অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন সেবা দ্রুত পান, সে কারণেpavelist.com নামে লোকাল বিজনেস ডিরেক্টরী হিসেবে এই সাইটটি তৈরির উদ্যেগ নেই।

 

তিনি বলেন, আমার উদ্যেশ হলো বিশাল এই বাংলাদেশী কমিউনিটির মধ্যে কানেক্টিবিটি তৈরী করে দ্রুত সেবা নিশ্চিতের লক্ষে একজন বাংলাদেশী হিসেবে কাজ করে যাওয়া।

 

তিনি আরো বলেন, এখানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আমার মত আরো অনেকেই তথ্য প্রযুক্তি নিয়ে সফল ভাবে কাজ করছেন। বর্তমানে আহসান আহমেদ ভার্জিনিয়া শহরে একটি আই টি কোম্পানিতে বিজনেস এ্যানালিষ্ট হিসাবে কর্মরত থেকে তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানান এ প্রতিবেদককে।

দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশে অনলাইন গণমাধ্যম নিয়ে কাজ করছেন অনলাইন গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ও বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কবি সৌমিত্র দেব।

 

এ বিষয়ে তিনি বলেন, বর্তমান অগ্রসরমান বিশ্বে তথ্য প্রযুক্তি একটি শক্তিশালী মাধ্যম হিসেবে কাজ করছে, সেক্ষেত্রে আমেরিকায় বাংলাদেশী অনেক মেধাবী তরুনরাই বিশ্বটাকে পাল্টে দিতে তথ্য প্রযুক্তিসহ নানান উদ্ভাবনী পেশায় যুক্ত থেকে কাজ করে যাচ্ছেন অনবরত।

 

তিনি বলেন, প্রবাসীদের মধ্যে অনলাইনে কানেক্টিবিটি বাড়াতে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীর এই উদ্যেগ সেদেশে বসবাসরত প্রবাসীদের, সেবা দ্রত পেতে ভুমিকা রাখবেwww.pavelist.comনামের অনলাইন মাধ্যমটি।