কিমকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানাতে পারেন ট্রাম্প

সবকিছু ঠিক থাকলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আর উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন বৈঠকে বসবেন। আগামী ১২ জুন সিঙ্গাপুরে ঐতিহাসিক এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে। আলোচনা ঠিকঠাক হলে কিম জং উনকে যুক্তরাষ্ট্র সফরের আমন্ত্রণ জানাতে পারেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

 

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিতব্য শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠকটি ভালোভাবে সম্পন্ন হলে তিনি উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণের বিষয়টি বিবেচনা করতে পারেন।

 

আগামী সপ্তাহে ট্রাম্প-কিম বৈঠকের বিষয়ে আলোচনা করতে জাপানি প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে যুক্তরাষ্ট্র সফরে রয়েছেন। শিনজো অ্যাবেকে সঙ্গে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সংবাদ সম্মেলনে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিতব্য বৈঠকের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন ট্রাম্প।

 

গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়, সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, ‘নিশ্চয়, যদি এটি ভালোভাবে অগ্রসর হয় এবং আমি মনে করি বৈঠকটি ভালোভাবেই অগ্রসর হবে, আমি মনে করি তিনি (কিম) এটি খুব গুরুত্বসহকারে দেখবেন।’

 

এমন একটি বৈঠক হোয়াইট হাউস অথবা ফ্রোরিডার মারে লাগাতে হতে পারে কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে ট্রাম্প বলেন, ‘হতে পারে, তবে আমরা হোয়াইট হাউজ দিয়ে শুরু করব। আপনারা কী মনে করেন?

 

বিবিসির খবরে বলা হয়, ট্রাম্প বলেছেন, উত্তর কোরিয়া প্রসঙ্গে ‘সর্বোচ্চ চাপ’ শব্দটি তিনি ব্যবহার করতে চান না। তিনি বলেন, আমরা একটি বন্ধুত্বপূর্ণ সমঝোতার দিকে যাচ্ছি। তবে তিনি এ বলেও সতর্ক করেন যে, আরও অনেক নিষেধাজ্ঞা রয়েছে-যা তিনি উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে প্রয়োগ করতে পারেন।

 

ট্রাম্প হুঁশিয়ারি দিয়ে আরও বলেছেন, শীর্ষ পর্যায়ের সম্মেলনটি যদি ভালোভাবে সম্পন্ন না হয়, তাহলে সামনে অগ্রসর হতে তিনি সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছেন ।

 

ট্রাম্প বলেন, বৈঠকটি যদি ভালোভাবেই সম্পন্ন হয়, তাহলে কিমকে হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণের বিষয়টি বিবেচনার বাইরে থাকবে না।

 

প্রসঙ্গত, ১২ জুনের শীর্ষ পর্যায়ের ওই বৈঠকটি সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপের বিলাসবহুল ক্যাপেল্লা হোটেলে অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গলবার (৫ জুন) হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে এ বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। সম্প্রতি অবকাশযাপন দ্বীপ হিসেবে পরিচিত সেন্তোসাকে দ্বীপকে ‘স্পেশাল ইভেন্ট এরিয়া’ হিসেবে ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সিঙ্গাপুর সরকার।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *