কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে তারকাটার বেড়ায় বন্ধী রয়েছে চার পরিবার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ২২ ডিসে ২০২০ ০৪:১২

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে তারকাটার বেড়ায় বন্ধী রয়েছে চার পরিবার

কুষ্টিয়া :
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে তারকাটার বেড়ায় বন্ধী রয়েছেন চারটি পরিবার। এতে চরম দূর্ভোগে পড়েছেন তারা। উপজেলার খলিসাকুন্ডি ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামে এমন অমানবিক ঘটনা ঘটেছে। লালন মন্ডল নামে এক ব্যক্তি নিজের বাড়ির সামনে তারকাটার বেড়া দিয়ে ওই এলাকার চার পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন। ফলে তাদের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে হয়ে গেছে। গত এক সপ্তাহ ধরে বন্ধী অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করলেও বন্ধী পরিবারগুলো চলাচলের রাস্তায় দেওয়া বেড়া উচ্ছেদের কোন ব্যবস্থা নেয়নি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসন। ফলে চরম দুর্ভোগে রয়েছেন ওই রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী পরিবারগুলোর লোকজন।
সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্র জানায়, মালিপাড়া গ্রামের চারটি পরিবারের লোকজনের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তাটি গত এক সপ্তাহ আগে তারকাটার বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেন লালন মন্ডল। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়ে বন্ধী পরিবারগুলোর সদস্যরা। স্থানীয় প্রভাবশালী লালন মন্ডল সম্পত্তির মালিক হওয়ায় নিজ ইচ্ছা ও স্বেচ্ছাচারীভাবে রাস্তায় বেড়া দেয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী লোকজন রাস্তা বন্ধের প্রতিবাদ করেও কোনো লাভ হয়নি।
তারকাটায় বন্ধী ভূক্তভোগীদের অভিযোগ, নিজের জায়গা অন্য কাউকে ব্যবহার করতে দিবে না বলে লালন মন্ডল রাস্তায় কাটাতারের বেড়া দিয়ে তাদের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছেন।
ভূক্তভোগী জিয়াউর রহমান জানান, লালন মন্ডলের বাবা তাহের মন্ডলের প্রায় ২৭ বছর আগে ওই গ্রামে জমি কিনে বসবাসের জন্য বলেন। তবে চলাচলের রাস্তা না থাকায় তারা প্রথমে যেতে রাজি না হলে তাহের মন্ডল তাদের চলাচলের জন্য রাস্তা দেওয়ার আশ্বাস দেন। হঠাৎ করেই তার ছেলে লালন মন্ডল রাস্তাটিতে তারকাটার বেড়া দিয়ে ঘিরে দেন। উপজেলা প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু সমাধানের দাবি জানিয়েও কোনো ফল পাননি বলে জানান ভূক্তভোগীরা।
তবে তারকাটার বেড়া দেওয়ার বিষয়ে লালন মন্ডল বলেন, যাতায়াতের নাম করে জিয়াউর রহমানসহ কয়েকটি পরিবার তার জমিতে অত্যাচার করে আসছিল। কারো রাস্তা বন্ধ করার জন্য নয় বরং নিজেদের জমিতে চাষাবাদের জন্য বেড়া দেওয়া হয়েছে। নিজেদের ক্ষতি করে অন্যকে সুবিধা দেয়া সম্ভব না।

তারকাটার বেড়া দেওয়া ঘটনার বিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার বলেন, বিষয়টি আমিও শুনেছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অতিশীঘ্রই সমস্যার সমাধান করা হবে।

এই সংবাদটি 1,234 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ