কোনও সংলাপ ব্যর্থ হয় না, সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়: আ স ম রব ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ১৬ সদস্য যারা যাচ্ছেন

ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ১৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সংলাপ করতে যাবেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব। তিনি বলেন, ‘কোনও সংলাপ ব্যর্থ হয় না। একটি সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়।’

মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন।
আ স ম রব বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের সব দলের প্রতিনিধি থাকবেন। আজ প্রধানমন্ত্রী সংলাপের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। এর মাধ্যমে আলোচনা হচ্ছে হবে এবং চলবে। ’

আ স ম রব আরও বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে আমাকে মুখপাত্র করা হয়েছে। ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করা ছাড়া কেউ ঐক্যফ্রন্টের কথা বলবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যাতে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হতে পারে, সব দল যেন অংশগ্রহণ করতে পারে, ভোটাররা যেন সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারেন, এসব বিষয়ে নিয়ে আমরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে খোলামেলা আলোচনা করবো। একইসঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাত দফা দাবি নিয়েও আলোচনা করবো। ’

প্রধানমন্ত্রীর সংলাপের চিঠিতে বলা আছে, সংবিধান সম্মত যেকোনও বিষয় নিয়ে আলোচনা হতে পারে, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে রব বলেন, ‘সংবিধান জনগণের জন্য নাকি জনগণের জন্য সংবিধান? দেশটা জনগণের জন্য নাকি জনগণের জন্য দেশ? সুতরাং জনগণ, মুক্তিযুদ্ধ ও গণতন্ত্রের স্বার্থে সব বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কথা বলতে হবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা বাড়ানোর বিষয়ে জেএসডি সভাপতি বলেন, ‘আমরা মনে করি তার (খালেদা জিয়া) এই মামলা রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক। সাবেক প্রধানমন্ত্রী দুই, তিন কোটি টাকা আত্মসাৎ করতে পারেন এটা মানুষ বিশ্বাস করে না। আমরা এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার জন্য তিনি সবাইকে আহ্বান জানান।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাড. সুব্রত চৌধুরীসহ অনেকে।

এদিকে গণভবনে আগামী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিতব্য আওয়ামী লীগের সঙ্গে রাজনৈতিক সংলাপের জন্য ১৬ জন প্রতিনিধির একটি দল নির্ধারণ করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এ প্রসঙ্গে আ স ম আবদুর রব জানান, ‘ড. কামাল ছাড়াও ১৫ জনের একটি প্রতিনিধিদল সংলাপে অংশ নেবে।’

গণভবনের সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধি দলে দলনেতা হিসেবে থাকবেন ড. কামাল হোসেন। বিএনপি থেকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার ও মির্জা আব্বাস। নাগরিক ঐক্য থেকে থাকবেন মাহমুদুর রহমান মান্না ও এসএম আকরাম। গণফোরাম থেকে মোস্তফা মোহসীন মন্টু ও সুব্রত চৌধুরী। জেএসডি থেকে আ স ম আব্দুর রব, আব্দুল মালেক রতন, তানিয়া রব। ঐক্য প্রক্রিয়া থেকে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর, আ ব ম মোস্তফা আমিন ও স্বতন্ত্র হিসেবে থাকবেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা আবদুল মালেক রতন বলেন, ‘আজকালের মধ্যে এই তালিকা গণভবনে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। আমরা মোট ১৬ জনের প্রতিনিধি দল যাবো সংলাপে।’