জানলে অবাক হবেন, পৃথিবীকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করছে মৌমাছি!

প্রকাশিত:রবিবার, ০১ সেপ্টে ২০১৯ ০৩:০৯

জানলে অবাক হবেন, পৃথিবীকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করছে মৌমাছি!

খুবই ছোট্ট একটা পতঙ্গ মৌমাছি। কিন্তু জানেন কি, মানব সভ্যতাকে টিকিয়ে রাখতে এই ছোট্ট পতঙ্গটির রয়েছে বিশাল অবদান। কি বিশ্বাস হচ্ছে না? চলুন তবে জেনে নেয়া যাক মানবজাতি টিকিয়ে রাখতে মৌমাছির অবদান কতটুকু-

 

একটা পৃথিবীর কথা কল্পনা করো তো! যেখানে কোন ফলমূল নেই, কোন ফুল নেই, নেই কোন শাক-সবজি! এই পৃথিবীটা কিসের মত হবে? সেই পৃথিবীতে কি আমরা টিকে থাকতে পারবো?

 

মৌমাছি যদি না থাকে তাহলে পৃথিবীর ৭০ শতাংশ প্রজাতির ফল, ফুল ও সবজি আর নতুন করে জন্ম নিবে না! নতুন করে জন্ম না নিলে একটা সময় পর আমরা নতুন কোন বীজ পাবো না। আর বীজ না পেলে ধীরে ধীরে পৃথিবী থেকে অনেক প্রজাতির গাছ বিলিন হয়ে যাবে! দেখা দেবে অক্সিজেন সংকট। পুরা ফুড চেইনের বিশৃঙ্খলার জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হবে পৃথিবী ও বায়ুমণ্ডল।

 

 

 

আমাদের পৃথিবীর একতৃতীয়াংশ খাবারের যোগানে প্রত্যক্ষভাবে অবদান রয়েছে মৌমাছির। গবেষণা বলছে, পৃথিবীর সর্বশেষ মৌমাছিটি মারা যাওয়ার ঠিক তিন মাসের মধ্যে সারাবিশ্বের ফুড চেইন পুরোপুরিভাবে ভেঙ্গে পড়বে, বিশৃঙ্খল হয়ে যাবে। আমরা আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় বেশিরভাগ খাবারই হাতের নাগালে পাবো না। বলা হচ্ছে, তখন অনেক দামি হিরা, জহরতের চেয়ে খাবারের দাম বেশি থাকবে। আর, একসময় আমাদের সংরক্ষণ করা খাবারও শেষ হবে! শুধুই কি খাবার? মৌমাছি না থাকলে আমরা কোনো ধরণে কটন সমৃদ্ধ জামা-কাপড়ও তৈরি করতে পারবো না। কারণ মৌমাছি না থাকলে গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম কাঁচামাল তুলা কখনো উৎপন্ন হবে না। ফলে আমাদেরকে আবার আগের যুগের মানুষের মতো গাছের ছাল-বাকলকেই জামা কাপড় হিসেবে ব্যবহার করতে হবে।

 

পরিবেশের ভারসাম্য পুরোপুরিভাবে নষ্ট হয়ে যাবে, খাবারের সংকট দেখা দিবে। একসময় হয়তো আমাদের পৃথিবী আর বসবাস উপযোগী থাকবে না। মহাবিশ্বের অন্যান্য গ্রহের মতো মানুষ বসবাসের অনুপযোগী হয়ে যাবে।

এই সংবাদটি 1,226 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •