জাসাস যুক্তরাজ্যের উদ্যোগে ১৬ জুন সংবাদপত্রের কালো দিবস ও ২৩ জুন পলাশী দিবস পালন:

 

জাসাস যুক্তরাজ্যে উদ্যোগে বিএনপি কার্যালয়ে সংবাদপত্রের কালো দিবস ও পলাশী দিবস উপলক্ষ্যে যুক্তরাজ্য জাসাস সভাপতি এমাদুর রহমান এমাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তাজবির চৌধুরী শিমুলের পরিচালনায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দেশনেত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম,প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম  এ মালিক, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা লালবাগের কমিশনার ও ঢাকা দক্ষিন বিএনপির সহসভাপতি মোশাররফ হোসেন খোকন, যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কয়সর এম আহমেদ,

ছিলেন ঢাকা লালবাগের কমিশনার ও ঢাকা দক্ষিন বিএনপির সহসভাপতি মোশাররফ হোসেন খোকন যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি আব্দুল হামিদ চৌধুরী,বিশেষ বক্তা ছিলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক শামসুল আলম লিটন, যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সিনিয়র যুগ্মসাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মামুন, সাংবাদিক আখতার মাহমুদ, সাবেক কেন্দ্রী য় জাসাস নেতা সামসুল হুদা   জাসাসের পক্ষ্য থেকে বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সহ সভাপতি তরিকুর রশিদ চৌধুরী শওকত,

সহ সভাপতি  আব্দুল্ কাহার  সালাম  ,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতালিব লিটন, সহিদ  আহমাদ , আবুল হসাইন আলম, আবু সলমান মুরাদ,  সাধারণ সম্পাদক আরিফ আহমেদ, মহানগর সাধারণ রাজ হাসান। আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন  , যুগ্ম সম্পাদক মুন্না খান,  সহ সাংগঠনিক সম্পাদক খলিলুর রহমান রুকন,তানবির আহমেদ খান সাহেদ আহমদ, সেলিম  আহম্মদ, মাস্টার  আমির,

মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রিয়  ছাত্রনেতা শফিক রিবলু, নান্না আহমেদ, মাস্টার আলাউদ্দিন আহমদ  ,  সাংবাদিক  মইনুল ইসলাম, ডালিয়া লাকুরিয়া সেলিম আহম্মদ,

আলোচনা সভায় বক্তাগণ বলেন ৭৫ সালে ১৬ জুন মাত্র কয়েক মিনিটে সংবাদপত্রের সার্কুলেশন বাতিল করে মাত্র ৪টি পত্রিকা প্রকাশের অনুমতি দিয়ে আইন পাশ করে তৎকালিন বাকশালী সরকার ।এ থেকে বাংলাদেশে ১৬ জুনকে সংবাদপত্রের কালো দিবস হিসাবে গন্য করা হয় এবং দেশপ্রেমিক সাংবাদিক সমাজ প্রতিবাদ স্বরুপ নানা কর্মসূচী পালন করে।এখন বাংলাদেশের সংবাদপত্রের উপর আরো বেশী ফ্যাসিবাদি আচরন করছে বর্তমান অবৈধ সরকার, পত্রিকা বা সাংবাদিক সরকারের সমালোচনা করলে নেমে আসে নানা মুখি নির্যাতন জেল জুলুম হামলা মামলা, বক্তাগণ বলেন দেশের সকল সাংবাদিক সমাজ এক হয়ে ফ্যাসিবাদী সরকারের বিরুদ্ধে নিরপেক্ষ্য অবস্থান থেকে প্রতিবাদ করতে হবে।বক্তাগণ আরো বলেন ১৭৫৭ সালে ২৩ জুন বাংলার বিহার উড়িষ্যার স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের শেষ সূর্য স্থমিত হয় নিজেদেরই কিছু মোনাফেক কুচক্রিমহলদের সহায়তায়, তারা নিজেরাই নিজেদের দেশ তোলে দিয়েছিল বৃটিশ বেনিয়াদের কাছে। বর্তমান ফ্যাসিবাদী অবৈধ অওয়ামী সরকার আদিপত্যবাদ ভারতের কাছে স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব বিলিয়ে দেবার পায়তারা করছে দেশপ্রেমিক জনগণ গণ আন্দোলনের মধ্যদিয়ে তাদের ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত করে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবে ইনশাল্লাহ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.