টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিপাতে পাইকগাছায় জনজীবন বিপর্যস্ত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টে ২০২০ ০৫:০৯

টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিপাতে পাইকগাছায় জনজীবন বিপর্যস্ত

ইমদাদুল হক, পাইকগাছা খুলনা :
পাইকগাছায় বৈরি আবহাওয়া ও টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিপাত এবং ওয়াপদার বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে এলাকা প্লাবিত হওয়ায় মৎস্য সহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তাছাড়া টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে উপজেলার সাধারণ মানুষের জনজীবন। গত কয়েকদিনের বিরামহীন বৃষ্টিপাতে তলিয়ে গেছে উপজেলার নিম্নাঞ্চল।
চরম দুর্ভোগে পড়েছেন খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষ।বৃষ্টিপাতের ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। কয়েকদিন কাজ করতে না পারায় পরিবার-পরিজন নিয়ে অনেকটাই দুর্ভোগে পড়েছেন দিনমজুর শ্রেণির মানুষ।গদাইপুর গ্রামের ভ্যানচালক মামুন জানান, তার কাজের উপর পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করতে হয়। বৃষ্টিপাতের কারণে গত কয়েকদিন ভ্যান গাড়ী নিয়ে বের হতে পারিনি। ফলে পরিবার-পরিজন নিয়ে অনেকটাই দুর্ভোগে রয়েছেন বলে তিনি জানান। টানা বৃষ্টিপাতের কারণে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ফসলের ক্ষেত,মৎস্য ঘের ও নার্সারি ক্ষেতের।
অপরদিকে গত তিন দিনে আমাবশ্যার প্রবল জোয়ারের পানিতে উপজেলার অধিক দূর্যোগ ঝুঁকিপূর্ন দ্বীপ বেষ্টিত দেলুটি ইউনিয়নে ভয়াবহ ঘূর্নিঝড় আম্পানের তান্ডবের পর আবারো ২০ নং ও ২০/১ নং পোল্ডারের সীমান্তবর্তী চকরি বকরি বদ্ধ জলমহালের দক্ষিন প্বার্শের প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে তিনটি গ্রামের আংশিক অংশ প্লাবিত হয়ে ঘর বাড়ী,মৎস্য খামার,গবাদীপশু,ফসল ও রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়েছে।গেউয়াবুনিয়া,পারমধুখালী,চকরিবকরি তিনটি গ্রামের প্রায় ১০০ শত পরিবার বানভাসী হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে।প্রায় দুই শত পরিবার এখনো মানবেতর জীবন যাপন করছে।
পাইকগাছা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দীকির নির্দেশনায় সৃষ্টি ড্যাম কেয়ার টীম, ও দেলুটি ইউনিয়ন এর তত্ত্বাবধানে এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতা-স্বেচ্ছাশ্রমে প্রায় তিন শত নারী-পুরুষের দুই দিন স্বেচ্ছা-শ্রমের বিনিময়ে প্রতিরক্ষা বাঁধটি বুধবার দুপুরে নির্মান করতে সক্ষম ০
হয়েছে।

এই সংবাদটি 1,233 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •