ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের অন্তর্ভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এতে কোথাও কোনো অনিয়ম বা বিশৃঙ্খলা ঘটেনি। গত বছর সিআইডির মাধ্যমে একটি প্রশ্ন ফাঁস চক্রকে আইনের আওতায় আনার পর এবার কোনো ধরনের জালিয়াতির খবর পাওয়া যায়নি। গতকাল শুক্রবার পরীক্ষা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, প্রক্টর, পরীক্ষার হলে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকরা এ তথ্য জানান।

এবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরে মোট ৫৪টি কেন্দ্রে গতকাল সকাল ১০টা থেকে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এক ঘণ্টার এই পরীক্ষায় ১২০ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্নের উত্তর দিতে হয় পরীক্ষার্থীদের। বরাবরের মতো মোবাইল ফোনসহ টেলিযোগাযোগ করা যায় এমন যে কোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ ছিল নিষিদ্ধ। প্রতিটি কেন্দ্রের প্রবেশপথে মেটাল ডিটেক্টরে তল্লাশি করে পরীক্ষার্থীদের হলে ঢোকানো হয়। অনিয়ম ও জালিয়াতি ঠেকাতে পরীক্ষার সময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল টিমের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত দায়িত্ব পালন করেন।

পরীক্ষা চলাকালে সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের এমবিএ ভবনের ১০ তলায় দুটি কক্ষ পরিদর্শন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। পরে ডিন কার্যালয়ের সামনে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন ও ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়ক অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দিন।

এ বছর ‘গ’ ইউনিটের ১২৫০টি আসনের বিপরীতে ভর্তিচ্ছুর সংখ্যা ছিল ২৬ হাজার ৯৬০ জন। অর্থাৎ প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তি লড়াইয়ে অংশ নেন ২১ জন।