তামাকপণ্যে সচিত্র সতর্কবাণী মুদ্রণ যথাসময়ে বাস্তবায়নের দাবি

স্বাস্থ্য-পুষ্টি  ডেস্ক :তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী তামাকপণ্যের প্যাকেট ও কৌটার উপরিভাগে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী মুদ্রণ বাস্তবায়িত হতে যাচ্ছে। জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেল এনটিসিসি এক গণবিজ্ঞপ্তি দিয়ে আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর হতে বাস্তবায়নের কথা রয়েছে। তবে সেটা ঘোষণার তারিখ থেকে যেন যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করা হয় তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়ছেন তামাকবিরোধী সংগঠন প্রজ্ঞা।

 

সোমবার রাজধানীর প্ল্যানার্স টাওয়ারে আয়োজিত এক কর্মশালায় বক্তারা এ দাবি জানায়। প্রজ্ঞার এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এ বি এম জুবায়েরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রজ্ঞার কনভেইনার মর্তুজা হায়দার লিটন, এন্টি টোব্যাকো মিডিয়া অ্যালায়েন্স (আত্মার) কো-কনভেনার নাদিরা কিরণ ও মিজান চৌধুরী।

 

জানা গেছে, সব তামাকজাত পণ্যের প্যাকেট, কার্টন বা কৌটার উপরিভাগের অন্যূন ৫০ শতাংশ জায়গাজুড়ে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী মুদ্রণ ব্যতীত কোনো তামাকজাত দ্রব্য বিক্রয় ও বাজারজাত করা যাবে না। একই সঙ্গে এ সংক্রান্ত পূর্বের প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তিটিও বাতিল করা হয়েছে। গত ৪ জুলাই এনটিসিসি এই গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

 

কর্মশালায় জানানো হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (২০০৪) হিসাব মতে, তামাক ব্যবহারের প্রত্যহ ফল হিসেবে আমাদের দেশে প্রতিবছর ৫৭ হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করে। পঙ্গুত্ব বরণ করে আরও তিন লাখ ৮২ হাজার মানুষ।

 

বক্তারা বলেন, তামাক কোম্পানিগুলো মানুষের মৃত্যু ত্বরান্নিত করার পণ্য বিক্রি করে। তাই কোম্পানিগুলো সুচতুরভাবে বিদ্যমান আইন লঙ্ঘন করে দেশব্যাপী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। যুবসমাজ তথা জনস্বাস্থ্যকে ঠেলে দিচ্ছে হুমকির মুখে। এমন পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে দেশে বিদ্যমান আইনের কঠোরভাবে প্রয়োগের করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *