তাহিরপুরে করোনাকে উপেক্ষা করে স্থানীয় পর্যটকদের ভিড়

প্রকাশিত:সোমবার, ০৩ আগ ২০২০ ০৫:০৮

তাহিরপুরে করোনাকে উপেক্ষা করে স্থানীয় পর্যটকদের ভিড়

পবিত্র ঈদুল আযহাকে কেন্দ্র করে করোনা ভাইরাস সংক্রমনকে উপেক্ষা করে তাহিরপুর উপজেলার টাঙ্গুয়া হাওর, শহীদ সিরাজ লেক (নিলাদ্রী লেক), বারেকটিলা, শিমুল বাগান, যাদুকাটা নদী সহ পর্যটন স্পট গুলোতে এবার বাহির বিভাগের পর্যটকরা না আসলেও স্থানীয় পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড়।

ঈদেরদিন থেকে পর্যটন স্পটগুলোতে কোথাও টায় নেই। ঈদের দিন বিকাল থেকে প্রতিদিন শতাধিক নৌকা নিয়ে মাইক, সাউন্ডবক্র বাজিয়ে বিয়ের সাজে সজ্জিত হয়ে স্থানীয় পর্যটকরা স্পটগুলোতে ঈদ উদর্যাপন করছেন। যে যার মতো গান-বাজনা করে আনন্দ উপভোগ করছেন। তাদের মনে নেই কোন করোনার ভয়। অন্যান্য বছর ঈদের দিন থেকে ঈদের তিনদিন পর্যন্ত ঢাকা, ময়মনসিংহ. ভৈরব, মৌলবী বাজার, সিলেটসহ বিভিন্ন বিভাগ শহর থেকে পর্যটক আসলেও এবার করোনার কারণে তারা আসেনি।

তবে, বাহির বিভাগের পর্যটক না আসলেও সুনামগঞ্জ, মহনগঞ্জ, কলমাকান্দা, জামালগঞ্জ, মধ্যনগরসহ বিভিন্ন জেলা, উপজেলা থেকে শত শত নৌকা নিয়ে পর্যটন স্পট গুলোর উচু নিচু টিলা, হাওর ও পাহাড়ী চড়া উপভোগ করছেন স্থানীয় পর্যটকরা।

অপরদিকে বাহির বিভাগের পর্যটকরা না আসায় স্থানীয় মোটরসাইকেল চালক, ট্রলার চালক ও দোকানদারা হতাশা প্রকাশ করেছেন।

তারা বলেছেন, এবার করোনার কারণে বাহির বিভাগের পর্যটকরা না আসায় তারা বেশ ক্ষতিগ্রস্থ্য হয়েছেন ।

কমলাকান্দা থেকে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসা তরুণদের সংগঠন জাগারণ যুব সংঘের দলপতি সৌরভ বললেন, করোনার শুরু থেকে ঘরে থাকতে থাকতে অতিষ্টা হয়ে উঠেছিলাম। তাই ঈদ উলক্ষে করোনার ভয়কে উপক্ষো করে বারেকটিলা, টাঙ্গুয়া হাওর, শহীদ সিরাজ লেক (নিলাদ্রী), শিমুল বাগানসহ আকর্ষণীয় স্থানগুলো উপভোগ করেছি।

তিনি বলেন, করোনার কারণে পর্যটন স্পটগুলোর বেশীর ভাগ দোকান পাট বন্ধ থাকায় নিজেরাই ট্রলারে রান্নার বান্নার কাজ করে সবাই মিলে মিশে খাবার খাচ্ছি। পর্যটন স্পটগুলোর এরিয়াতে কিছু দোকানপাট খোলা থাকলেও বেশী দামে তারা খাবার বিক্রি করছেন।

রবিবার বিকালে পরিবার পরিজন নিয়ে টাঙ্গুয়ার হাওর উপভোগ করতে আসা সুনামগঞ্জ থেকে ব্যাবসায়ী ফারুক মিয়া আসেন জানান, ঘরে থাকতে থাকতে আর ভাল লাগছিল না। তাই করোনার ভয়কে উপক্ষো করে সুরক্ষা সামগ্রী পড়ে টাঙ্গুয়ার হাওর, বারেকটিলা, শহীদ সিরাজ লেকসহ বিভিন্ন স্পট দেখেছেন। সময় পেলেই পরিবার পরিজন ও বন্ধু বান্ধবদের নিয়ে চলে আসেন এসব স্পটে।

ট্যাকেরঘাট ক্যাম্প ইনচার্জ এএসআই আবু মোছা জানান, এবার করোনার কারণে বাহির বিভাগের পর্যটকরা না আসলেও স্থানীয় পর্যটকদের ভিড় অনেক। ঈদের দিন বিকাল থেকে শত শত নৌকায় করে স্থানীয় পর্যটকরা ট্যাকের শহীদ সিরাজ লেকের পাশে অবস্থান করে ঈদ উদর্যাপন করছে।

তিনি বলেন, পুলিশ চেষ্টা করছে পর্যটকদের সামাজিক ও শারিরিক দুরুত্ব বজায় রাখতে কিন্তু কোন ভাবেই সম্ভব হচ্ছেনা।

এই সংবাদটি 1,231 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ