তিতেকেই কাতার বিশ্বকাপের জন্য রেখে দিতে চায় ব্রাজিল

দারুণ শক্তিশালী একটি দল নিয়ে এসেও দুর্ভাগ্যের শিকার ব্রাজিল। রাশিয়া বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে শক্তিশালী বেলজিয়ামের কাছে ২-১ গোলে দুর্ভাগ্যজনক হার মাথায় নিয়ে ফিরে যেতে হলো টুর্নামেন্টের সবচেয়ে ফেবারিট দলটিকে। নেইমার-কৌতিনহো-উইলিয়ানরা কোয়ার্টার ফাইনালে শত চেষ্টা করেও পারেনি বেলজিয়ামের জালে দ্বিতীয়বার বল জড়াতে।

 

হেক্সা জয়ের মিশন নিয়ে এলেও শেষ আট থেকে হতাশাজনক বিদায়ে যেখানে কোচ তিতের মুন্ডুপাত করা কথা ব্রাজিলিয়ানদের, সেখানে তিতের প্রশংসাই চলছে তার নিজের দেশে। স্পেন, আর্জেন্টিনা থেকে শুরু করে অন্য দেশগুলো যখন আগেই বিদায় নিয়ে দেশে ফিরেছে এবং তাদের কোচকে বিদায় করে দিচ্ছে, সেখানে ব্রাজিল হাঁটছে উল্টো পথে।

 

 

 

ব্রাজিল ফুটবল কনফেডারেশন তাদের কোচ তিতের ওপর এতটাই সন্তুষ্ট যে, ২০২২ বিশ্বকাপ পর্যন্তই তাকে ব্রাজিল জাতীয় দলের কোচ হিসেবে রেখে দিতে চায়। ২০১৬ সালেই ৫৭ বছর বয়সী তিতের হাতে ব্রাজিল দলটিকে তুলে দিয়েছিল দেশটির ফুটবল ফেডারেশন। তিতে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই বদলে যায় সেলেসাওরা। যে অমানিশার অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়েছিল পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়নরা, সেই ঘোর অমানিশা থেকে দলকে বের করে আনেন তিতে। শুধু তাই নয়, সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করে ব্রাজিল।

 

তিতে নিজের সিদ্ধান্ত এখনও জানাননি। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই সিদ্ধান্ত জানাবেন হয়তো। তবে ব্রাজিল ফুটবল কনফেডারেশনের (সিবিএফ) চিন্তার সাথে মিলে যাচ্ছে তিতের চিন্তাও। তিনিও চান, ঘরের মাঠে কোপা আমেরিকায় ব্রাজিল দলের দায়িত্ব পালন করতে।

 

ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশনের প্রধান নিজেও বুঝতে পারছেন, চলমান বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে তার দেশ কেন বিদায় নিয়েছে। তবে, তিনি চান না দলের মধ্যে মৌলিক কোনো পরিবর্তন আনতে। বিশেষ করে ২০১০ এবং ২০১৪ বিশ্বকাপের পর যেভাবে বড় বড় পরিবর্তন আনা হয়েছিল, তেমন কোনো পরিবর্তন আপাতত আনার চিন্তা নেই সিবিএফের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.