থড় আসা ধান গাছ বিক্রি করা হচ্ছে গো-খাদ্য হিসাবে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ০৮ অক্টো ২০২০ ১০:১০

থড় আসা ধান গাছ বিক্রি করা হচ্ছে গো-খাদ্য হিসাবে

এম, এ কুদ্দুস. বিরল (দিনাজপুর) :
দিনাজপুরের বিরলে অবাধে জমি থেকে গুটি বা থড় আসা আমন ধানের চারাগাছ কেটে গো-খাদ্য হিসাবে বিক্রি করা হচ্ছে। যেন দেখার বা বলার কেউ নেই।
গো-খাদ্য সংকট দেখিয়ে থড় আসা এসব ধানগাছ আগাম কাটা হচ্ছে বলে ধান বিক্রেতা অনেকে জানালেও সচেতন মহল মনে করছেন এর ফলে এ অঞ্চলের মানুষ খাদ্য সংকটে পড়তে পারে। তবে কৃষি অফিস জানিয়েছে, যে কোন পরিস্থিতিতেই হোক না কেন গুটি বা থড় আসা এসব ধান গাছ আগাম কাটার কোন সুযোগ নেই।
বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, এবারের চলতি বর্ষা মৌসুমে বেশি পরিমানে বৃষ্টি পাত এবং দেশের বিভিন্ন জেলায় দফায় দফায় বন্যা হবার কারণে এ অঞ্চলের গো-খাদ্য (ধানের খড়) ব্যবসায়ীরা ট্রাক লোড করে দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যাবার কারণে কিছুটা গো-খাদ্য সংকট দেখা দেয়। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে অর্থলোভী কিছু মানুষ আমন ধানের থড় আসা চারা গাছ গুলি জমি থেকে কেটে বিরল পৌরশহরসহ উপজেলার বিভিন্ন বাজার ও মোড়ে ফেরি করে বেশি দামে বিক্রি করছে। এ ব্যাপারে কৃষকদের সাথে কথা হলে অনেক কৃষক জানান, থড় আসা এসব ধান অল্প দিনের মধ্যে কৃষকের ঘরে উঠতো। খড়ের দাম বেশি হবার কারণে ওই সুযোগ কাজে লাগিয়ে ব্যবসায়ীরা চড়া দামে কিনে এসব ধান গাছ গো-খাদ্য হিসাবে বিক্রি করছে। তবে এমনটা করা ঠিক হচ্ছে না। বিরল উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) জাবের মো: সোয়েবের নিকট এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, আমি বিষয়টি অবগত হবার পর কৃষি অফিসকে বিষয়টির ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য মৌখিক নির্দেশ দিয়েছি। বিরল অফিসার কৃষি মাহাবুবুর আলম জানান, অপুষ্ট থড় আসা আগাম ধান কর্তনের কোন সুযোগ নেই। আমরা উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে কৃষকদের এ ব্যাপারে সচেতন করছি।

এই সংবাদটি 1,227 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •