দরদি মন নিয়ে রোগীর সেবা দিন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান নার্সদের উদ্দেশে বলেছেন, দরদি মন নিয়ে আপনজন মনে করে পরম মমতায় রোগীদের সেবা দিতে হবে। রোগীরা যাতে চিকিৎসাসেবা নিয়ে সন্তষ্ট হয়ে বাড়ি ফিরে যেতে পারেন তা সংশ্লিষ্ট সবাইকে সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে নিশ্চিত করতে হবে।

 

বুধবার তার কার্যালয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েট নার্সিং বিভাগের তৃতীয় ব্যাচের মেধাবী নার্সদের নিয়োগপত্র প্রদানের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

 

উপাচার্য বলেন, বর্তমান প্রশাসন নার্সিং সেবার মান উন্নয়নে নানামুখী উদ্যোগ নিয়েছে। নার্সিং আফিসার, সিনিয়র স্টাফ নার্সসহ সবপর্যায়ের নার্সদের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে মতবিনিময় সভা করা হয়েছে। সিনিয়র নার্সিং কর্মকর্তাদের মাধ্যমে রাউন্ডের ব্যবস্থা করা হয়েছে। রোগীদের সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলা, রোগীদের নিজ হাতে ওষুধ খাওয়ানো এবং রোগীরা কেমন আছেন সে কুশলাদি বিনিময়ের জন্য নার্সদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। রোগীদের সঙ্গে এমন আচরণ করা যাবে না যাতে তারা অসন্তুষ্ট হন এবং অভিযোগ দিতে বাধ্য হন।

 

 

 

অধ্যাপক কামরুল হাসান বলেন, মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা প্রতিযোগিতামূলক ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েট নার্সিং বিভাগে ভর্তির সুযোগ পান। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে চার বছর অধ্যয়নের সব পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ও ছয় মাসের ইন্টার্নশিপ সম্পন্ন করাসহ বাংলাদেশ নার্সিং অ্যান্ড মিডিওয়াইফারি কাউন্সিলের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পরই তারা নার্স হিসেবে চাকরি করার যোগ্যতা অর্জন করেন।

 

নিয়োগপত্র প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়ল, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল হান্নান, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবুর রহমান দুলাল, পরিচালক (হাসপাতাল) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আব্দুল্লাহ আল হারুন, পরিচালক (মানবসম্পদ) ডা. জামাল উদ্দিন খলিফা, গ্র্যাজুয়েট নার্সিং বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মেবেল ডি রোজারিও, চিফ এস্টেট অফিসার ও বিএসসি নার্সিং ডেভেলপমেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. এ কে এম শরীফুল ইসলাম, উপ- রেজিস্ট্রার ডা. শেখ আব্দুল্লাহ আল মামুন, সেবা তত্ত্বাবধায়ক সান্তনা রাণী দাস, অতিরিক্ত সেবা তত্ত্বাবধায়ক হালিমা বেগম প্রমুখ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *