দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় মানসিক সেবা অন্তর্ভুক্তি চান সায়মা ওয়াজেদ

মানবিক বিপর্যয় ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে আঘাতপ্রাপ্ত লোকদের আরও বেশি সহায়তা প্রদানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনায় মানসিক স্বাস্থ্য সেবা অন্তর্ভুক্তির ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন অটিজম বিষয় জাতীয় উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসনিার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ হোসেন।

 

ডিজএ্যাবিলিটি অ্যান্ড ডিজাস্টার রিস্ক ম্যানেজমেন্ট শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে এক অধিবেশনে তিনি এ গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, ‘মনো-সামাজিক সহায়তার জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনার মূলনীতির আরও মানোন্নয়ন প্রয়োজন।’

 

হু’র দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের অটিজম বিষয়ক শুভেচ্ছাদূত সায়মা হোসেন কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মানসিক আঘাতজনিত অবস্থা কাটিয়ে ওঠতে তাদের নিবিড়ভাবে পরামর্শ দানের সুপারিশ করেন। তিনি বলেন, ‘দক্ষ প্রশিক্ষিত কর্মীদের দ্বারা একটি কমিউনিটি ভিত্তিক সেটআপে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা দিতে হবে।’

 

অধিবেশনে সায়মা হোসেন ‘মডেলস ফর সাইকোসোস্যাল সাপোর্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অব ট্রমা ডিউরিং হিউমেনিটারিয়াল ক্রাইসিস’ শীর্ষক বক্তব্য উপস্থাপন করেন। এছাড়া তিনি যেকোনো বিপর্যয়ের পর আঘাতপ্রাপ্ত লোকদের সহযোগিতা দানে যথাযথ প্রশিক্ষিত কমিউনিটি পর্যায়ের কর্মী সৃষ্টির সুপারিশ করেন তিনি।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মো. শাহ কামাল। প্যানেল আলোচক ছিলেন হু’র মেন্টাল হেলথ টেকনিক্যাল অফিসার ফর কক্সবাজার সেলমা সিভলি, সূচনা ফাউন্ডেশনের গবেষণা বিশেষজ্ঞ নাজিশ আরমান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব নায়লা আহমেদ।

 

তিনদিনব্যাপী এ সম্মেলনে ৩৩টি দেশ থেকে ১১০ জন বিশ্বখ্যাত বিশেষজ্ঞসহ প্রায় তিন হাজার প্রতিনিধি অংশ নেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *