|
সর্বশেষ
সিঙ্গাপুরে ভাষা শহিদ স্মরণে কবিতা প্রতিযোগিতা         মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ফ্রান্সে ভাষার মেলা         অমিতাভের সঙ্গে টুইটার কর্মকর্তাদের সাক্ষাৎ         গ্রেস মুগাবের পিএইচডি নিয়ে দুর্নীতি, উপাচার্য গ্রেপ্তার         মালয়েশিয়া বিএনপির উদ্যোগে গণস্বাক্ষর অভিযান শুরু         কানাডায় বাংলাদেশি তরুণীর কৃতিত্ব         আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণে আগের অবস্থান থেকে সরে আসছেন ট্রাম্প         জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে ইন্টার্ন নারী চিকিৎসককে মারধরের অভিযোগ         খালেদা জিয়া ছাড়া নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে না : ফখরুল         উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হলে জিএসপি সুবিধা পাবো : বাণিজ্যমন্ত্রী         জীবনে জীবন মেলাবার গল্প         ভাষার প্রতি ভালোবাসা         নেককার বান্দাদের জন্য জান্নাতের নেয়ামতের ঘোষণা         যে কারণে পেয়ারা খাবেন         মাতৃভাষা দিবসের নাটকে ঈশানা ও নিলয়        
প্রকাশিত হয়েছে : 11:12:11,অপরাহ্ন 11 February 2018 |

দূরে থাকুক ডায়াবেটিকস

ডায়াবেটিকস যেন এক আতঙ্কের নাম। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশেও বাড়ছে ডায়াবেটিকস রোগীর সংখ্যা। অনেকে রক্তে সুগারের মাত্রা বেশি দেখলে না খেয়ে অতিরিক্ত ব্যায়াম করে শরীরের ওজন কমিয়ে প্রি-ডায়াবেটিকস ঠেকাতে চান। কিছু কিছু অভ্যাস শারীরিক চর্চা করলে প্রি-ডায়াবেটিকস থামানো যায়। শরীরের উচ্চতা ও গঠন অনুযায়ী ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। নির্দিষ্ট ওজন থেকে ৫-১০ কেজি বেশি ওজন হলে তা শরীরের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।। নিয়মিত শারীরিক ব্যয়াম কররে ওজন কমানো সম্ভব। তাছাড়া কম ক্যালরীযুক্ত খাবার খেয়েও ওজন কমিয়ে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

 

আরও পড়ুন : যে কারণে স্বাস্থ্যকর খাবার বেশি খাবেন না

ডায়বেটিকস বা প্রি-ডায়াবেটিকস লোকের হাঁটার বিকল্প নেই। গবেষণায় দেখা গেছে যারা দৈনিক ৪ ঘন্টা ব্যায়াম বা ১ ঘণ্টা নিয়মিত হাঁটে তাদের ডায়াবেটিকস হওয়ার ৮০% ঝুকি কমেছে। হাঁটলে বা ব্যয়াম করলে শরীরের কোষে ইনসুলিন রিসেপ্টারের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।

 

 

 

যতটা সম্ভব শাক-সবজি খেতে হবে। শর্করা কাওয়ার আগে শাক সবজি, সালাদ খেয়েও রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

 

সঠিক খাবার বেছে খেলে ফিট থাকা যায়। রক্তের সুগার ও কন্টলে থাকে। আঁশযুক্ত খাবার খাওয়া ভালো যেমন: ভুট্টা, যব, গম , আটা, ঢেঁকিছাটা চাল, ইত্যাদি।

 

চিনিযুক্ত খাবার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলা আবশ্যক যেমন: ব্রাউন সুগার, গ্লুকজ, গুড়, চিনি. যতটা সম্ভব মাছ খাওয়ার অভ্যাস করুন তেল যুক্ত খাবার পরিহার করতে হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*