নওগাঁয় আদিবাসীদের ৮ বিঘার ধানে বিষ : প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত:বুধবার, ২৩ সেপ্টে ২০২০ ১১:০৯

নওগাঁয় আদিবাসীদের ৮ বিঘার ধানে বিষ : প্রতিবাদে মানববন্ধন

তমাল ভৌমিক, নওগাঁ :
নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার উত্তর চকবেনী গ্রামে আদিবাসীদের রোপনকৃত ৮ বিঘা রোপা আমন ধানে বিষ প্রয়োগে ফসল বিনষ্টকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তিসহ জেলার সকল আদিবাসীর নিরাপত্তার দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
জাতীয় আদিবাসী পরিষদ নওগাঁ শাখার উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার দুপূরে শহরের মুক্তির মোড় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনের সড়কে ঘন্টাব্যাপী এ কর্মসূচী পালন করা হয়।
জেলা জাতীয় আদিবাসী পরিষদের আহবায়ক নরেন চন্দ্র পাহানের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্রনাথ সরেন, সাধারন সম্পাদক সবিন চন্দ্র মুন্ডা, আদিবাসী পরিষদের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন মুকুল ও শহীদ হাসান সিদ্দিকী স্বপনসহ আদিবাসী নেতারা বক্তব্য রাখেন।
বক্তারা এ সময় বলেন, বদলগাছী উপজেলার উত্তর চকবেনী গ্রামে ৫০টি অধিক পরিবারের বসবাস। তাদের বাপ-দাদার সম্পত্তির ৮ বিঘার আমন ধান গত ৫ সেপ্টেম্বর উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কিটনাশক (বিষ) প্রয়োগ করে একই এলাকার আজমুল হক চৌধুরীর ছেলে হাসিনুর জামান চৌধুরী নষ্ট করে দিয়েছে। সমস্ত ধান নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ঘরে তাদের ধান তুলতে না পারায় ঘরে খাবার নেই। আদিবাসিরা এখন অনাহারে দিনযাপন করছেন। এ ঘটনায় ফসল বিনষ্টকারী হাসিনুর জামান চৌধুরীগংদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিতে গেলেও বদলগাছী থানার ওসি অভিযোগ গ্রহণ করেননি। ইতি পূর্বেও ওসি সাথে হাসিনুর জামানের সাথে যোগসাজশে আদিবাসিদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে আদিবাসিদের সম্পত্তি দখল ও উচ্ছেদ করেছে তারা। এঘটনায় পুলিশের মদদে আদিবাসিদের বিভিন্ন হুমকি দিয়ে যাচ্ছে আদিবাসিদের।
ধামইরহাট উপজেলার উত্তর কাশিপুর নাওয়াপাড়া আদিবাসীদের প্রায় ৭ বিঘা পুকুর সম্পত্তি দখল করে আসছেন এবং বিজ্ঞ আদালতে রেকর্ড সংশোধনীয় মামলায় থাকলেও ৫ জুলাই আদিবাসিপাড়ায় এলাকার প্রভাবশালীরা হামলা চালিয়ে নারী ও শিশুদের উপর নির্যাতন চালায়। এ ঘটনায় ধামইরহাট থানার এসআই শহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করারপর হামলা ও নির্যাতনের মতো কোন ঘটনা ঘটেনি বলে থানায় প্রতিবেদন দেন।
অপরদিকে ৭ জুলাই মান্দা উপজেলার সদলপুর আদিবাসিপাড়ায় দুর্বৃত্তদের হামলা চালায়। এ ছাড়াও জেলায় আদিবাসিদের উপর সকল হত্যা, ধর্ষণ, হামলা, মারপিট, উচ্ছেদ ও নির্যাতন কারিদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ সকল আদিবাসীর নিরাপত্তার দাবী জানান।
এই কর্মসূচী শেষে বিক্ষোভ সমাবেশ শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে নওগাঁয় আদিবাসীদের বিভিন্ন এলাকায় নিযাতন, উচ্ছেদ, হামলা সম্বলিত একটি স্মারকলিপি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের নিকট প্রদান করা হয়েছে। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের আদিবাসী নেতারা জানান, পুলিশের পক্ষে আসিবাসীরা কোন সহযোগিতা পাচ্ছেন না। আর এ কারণেই আদিবাসীদের উপর দিনদিন নির্যাতনসহ বিভিন্ন অত্যাচার বেড়ে যাচ্ছে।
পুলিশের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বদলগাছী থানার ওসি চৌধুরী জোবাইর আহম্মেদ জানান, হাসিনুর জামানরা প্রায় ৮০ বছর থেকে জমিগুলো দখল করে ভোগ দখল করছেন। এ ছাড়াও বিজ্ঞ আদালতে মামলা রয়েছে। এ ব্যাপারে পুলিশদের কিছু করার নেই। ধামইরহাট থানার ওসি আব্দুল মমিন জানান, সদ্য যোগদান করেছি। সে কারনেই বিষয়টি পুরোপুরি জানা নেই। তবে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক উত্তম কুমার রায় জানান, এ বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবহিত করা হবে। পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া ব্যস্ত থাকায় সেল ফোনে যোগাযোগে করার পর সেল ফোনের সংযোগ কেটে দেওয়ায় কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এই সংবাদটি 1,227 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •