নতুনদের নিয়ে আশাবাদী তামিম

ত্রিদেশীয় সিরিজে ব্যর্থতার পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও হার। ঘরের মাঠে বাংলাদেশ দলের নিজেদের সামর্থ্য প্রমাণের শেষ সুযোগ টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এই সিরিজে পাঁচ নতুন মুখকে ডেকে লঙ্কানদের যেন একটু চমকই দিতে চাইছে টাইগাররা। নতুন এই পাঁচজনকে নিয়ে ভীষণ আশাবাদী তামিম ইকবাল।

 

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে ডাক পেয়েছেন বিপিএলে দুর্দান্ত পারফর্ম করা আবু জায়েদ রাহী, আরিফুল হক, মেহেদী হাসান, জাকির হোসেন ও আফিফ হোসেন।

 

এই পাঁচজনই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভালো করার যোগ্যতা রাখেন, মনে করছেন তামিম। তবে দুই একটি ম্যাচ সুযোগ দিয়েই কারও সামর্থ্য নির্ণয় করে ফেলার পক্ষপাতী নন দেশসেরা এই ওপেনার। তিনি মনে করছেন, যাকেই সুযোগ দেয়া হোক, সেটা হতে হবে দীর্ঘ সময়ের কথা মাথায় রেখে।

 

 

 

পাঁচ নতুন ক্রিকেটার দলে আসা সম্পর্কে কি ভাবছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তামিম জানালেন, আসলে দুই তিনজনের দলে ডাক পাওয়াটা প্রত্যাশিতই ছিল। তামিমের ভাষায়, ‘দেখেন, আমি দুই তিনজনের নাম বলি। আলাদা করে বলব রাহির কথা। আমার মনে হয়, সে জায়গা পাওয়ার দাবিদারই। কারণ গত দুই বছর ধরে সে বিপিএলে বোলিংয়ে সেরা পারফরমার। আরিফুল হকও দুই তিন বছল ধরে সমানভাবে ভালো খেলে যাচ্ছে। আমরা সবসময় বলি, আমাদের এমন একজন দরকার যে ম্যাচ শেষ করে আসতে পারবে। আবার বড় হিটও করতে জানে। তার সে সামর্থ্য আছে। তাই সেও জায়গা পাওয়ার দাবিদার।’

 

বাকিদেরও যারা ডাক পেয়েছেন, তাদের এক-দুটি ম্যাচ না দেখে দীর্ঘ সময়ের কথা ভাবা উচিত-মনে করেন তামিম। নির্বাচকরা তাদের সামর্থ্য দেখেই সুযোগ দিয়েছেন, বিশ্বাস এই ওপেনারের, ‘কেউ শুরুতেই ভালো করতে পারে। আবার প্রথমে না হলেও এমন হতে পারে ৪-৫ ম্যাচ পর ভালো করবে। এমনও হতে পারে ফার্স্ট ম্যাচ থেকেও ভালো খেলতে পারে। আমি নিশ্চিত, নির্বাচকরা তাদের সামর্থ্য এবং স্কিল লেভেল দেখেই নিয়েছেন। আশা করব, তারা সুযোগটাও বড় সময়ের জন্য পাবে।’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.