Fri. Dec 13th, 2019

BANGLANEWSUS.COM

-ONLINE PORTAL

নিউইয়র্কে মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার স্মরণ সভায় বক্তারা : তার তুলনা শুধু তিনি নিজেই

1 min read

নিউইয়র্ক ডেস্কঃ সদ্য প্রয়াত অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সাবেক মন্ত্রী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এবং বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার স্মরণে এক সভা এবং দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিক সমাজ। গত ১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে জ্যাকসন হাইটসের বেলাজিনো পার্টি হলে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন আয়োজক কমিটির আহবায়ক আতিকুর রহমান সালু এবং সঞ্চালনায় ছিলেন সাপ্তাহিক বাংলাদেশ পত্রিকার সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান। সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাদেক হোসেন খোকার কন্যা সারিকা সাদেক, খোকার বোন মাজেদা হোসেন, নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত ঠিকানার প্রধান সম্পাদক মুহম্মদ ফজলুর রহমান, প্রবীণ সাংবাদিক মনজুর আহমদ, বাংলা পত্রিকার সম্পাদক আবু তাহের, সাপ্তাহিক পরিচয় সম্পাদক নজমুল আহসান, সাংবাদিক মঈনুদ্দীন নাসের, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শিল্পী বেবি নাজনীন, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু, অধ্যাপক ড. শওকত আলী, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন খান, কম্যুনিটি এক্টিভিস্ট আলী ইমাম শিকদার, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, এডভোকেট মজিবুর রহমান, বাংলাদেশ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সিদ্দিকী, বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচনে সভাপতি প্রার্থী কাজী আশরাফ হোসেন নয়ন, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক কোষাধ্যক্ষ জসীম উদ্দিন ভুইয়া, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান ভুইয়া মিল্টন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, ছাত্রদলের সাবেক নেতা মোশাররফ হোসেন সবুজ, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা পারভেজ সাজ্জাদ, কাজী শাখাওয়াত হোসেন আজম, মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার ফরহাদ, যুক্তরাষ্ট্র যুব দলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, বাংলাদেশ সোসাইটির সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুর রহিম হাওলাদার, মুফতি মোহাম্মদ ইসমাইল, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম, বাংলাদেশ সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, বিএনপি নেতা হেলাল উদ্দিন, জাতীয়তাবাদী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক গোলাম এম হায়দার মুকুট, বিএনপি নেতা সেলিম রেজা, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি শেখ হায়দার আলী প্রমুখ।

 

 

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সাদেক হোসেন খোকা ছিলেন একজন মুক্তিযোদ্ধা। তিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক, মানবতাবাদী এবং প্রকৃত দেশপ্রেমিক একজন নেতা। তার সাথে কারো তুলনা চলে না। তার তুলনা শুধু তিনি নিজেই। তারা আরো বলেন, সাদেক হোসেন খোকাকে হারিয়ে বাংলাদেশ একজন দেমপ্রেমিক এবং গণতান্ত্রিক নেতাকে হারালো। তিনি ছিলেন দলমতের উর্ধ্বে। তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের নামে সড়ক নামকরণ করেছেন দলের উর্ধ্বে থেকে। এ ছাড়া তিনি সার্বজনীন নেতা ছিলেন। তার কাছে কেউ খালি হাতে ফিরে আসতে পারেননি। তিনি সব সময় দেশ এবং বাংলাদেশের মানুষের জন্য কাজ করেছেন। কেউ কেউ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আগামীতে যেন কোন মুক্তিযোদ্ধাকে বাংলাদেশে ট্রাভেল ডমুমেন্ট নিয়ে যেতে না হয়। একজন মুক্তিযোদ্ধার নামে যেন রাজনৈতিক কারণে মিথ্যা মামলা দেয়া না হয় এবং প্রতিহিংসার বসবর্তী হয়ে সম্পত্তি কেড়ে নেয়া না হয়।

 

সারিকা সাদেক অনুষ্ঠানের আয়োজন করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রবাসী এবং বাংলাদেশীরা আমার বাবার প্রতি যে ভালবাসা দেখিয়েছেন সে জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। তবে সত্যি বলত কী- এখনো বিশ্বাস হয় না, আমার বাবা নেই। তাকে সব সময় ফিল করি। আপনারা আমাদের জন্য দোয়া করবেন।

 

মাজেদা হোসেন বলেন, ছোট বেলা থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সাদেক হোসেন খোকা ছিলেন আমার ছোট বেলা থেকেই সাথী। কখনো খেলার সাথী, কখনো বন্ধু। তার সাথে আমার অনেস স্মৃতি। সেগুলোতে বলে আর শেষ করা যাবে না। তবে প্রবাসী এবং দেশবাসী আমাদের যে সহযোগিতা করেছেন সে জন্য তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।

 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ আহমেদ, শোটাইম মিউজিকের প্রেসিডেন্ট আলমগীর খান আলম, আহসান হাবিব, মেহফুজুর রহমান, রেজাউল আজাদ ভুইয়া, আব্দুল মুহিত, মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, কম্যুনিটি এক্টিভিস্ট ওসমান গনি, কাজী আজহারুল হক মিলন, এবাদ চৌধুরী, খলকু রহমান, হাসান আহমেদ, আনোয়ার হোসেন, শাহাদাত হোসেন রাজু, সাইফুল ইসলাম, সাইফুর খান হারুন, বশির উদ্দিন, বাদশা হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই’র সভাপতি স্বপন বড়–য়া, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, আব্দুস সবুর, বিলাল চৌধুরী প্রমুখ।

Copyright © Banglanewsus.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.