নিউইয়র্ক-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভায় বক্তারাঃ মাহমুদুর রহমানের উপর বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও উদ্বেগ জানান।

রশীদ আহমদঃ আমারদেশ  সম্পাদক ও নির্ভীক কলম সৈনিক মজলুম মাহমুদুর রহমান এর উপর বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে নিউইয়র্ক-বাংলাদেশ প্রেসক্লাব এর উদ্দ্যোগে এক সাংবাদিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।গত ২৪শে জুলাই মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে  ৮টায় জ্যাকসন হাইটসে প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে  ক্লাবের সভাপতি ডাঃ ওয়াজেদ এ খান ও সেক্রেটারী জেনারেল  শিবলী চৌধুরী কায়েস এর সাবলীল সঞ্চালনায় বক্তারা বলেন,দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট মাহমুদুর রহমানের উপর কুষ্টিয়ার একটি আদালত চত্বরে,পুলিশের সামনে বর্বোরোচিত সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও নিন্দা জানান। অবিলম্বে এ ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করে দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবী জানান।

বক্তারা আরো বলেন, আদালত প্রাঙ্গণে প্রকাশ্যে দিবালোকে মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা জাতি হিসেবে আমাদের সামগ্রিক অধঃপতনের একটি নমুনা। ভিন্নমত দমনে শারিরীক আক্রমণসহ যেকোনো বেআইনী কর্মকান্ড এবং আইনের অপপ্রয়োগ কিংবা ক্ষেত্রমতো নিবর্তনমূলক আইনের মাধ্যমে মতপ্রকাশের অধিকার কেড়ে নেওয়ার যে কোনো অপচেষ্টা অগ্রহণযোগ্য।এছাড়া বক্তারা  বিতর্কিত ৫৭ ধারা অবিলম্বে বাতিল করারও জোর দাবী জানান।

প্রতিবাদ সভায়  বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্ক-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা ও সাপ্তাহিক  আজকালের সম্পাদক মঞ্জুর আহমেদ,ক্লাবের উপদেষ্টা ও সিনিয়র সাংবাদিক মইনুদ্দিন নাসের,আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সাপ্তাহিক পরিচয় সম্পাদক নাজমুল আহসান, টাইম টেলিভিশনের সিইও এবং সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকার সম্পাদক আবু তাহের, সাপ্তাহিক রানার এর সম্পাদক মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন,সাপ্তাহিক জন্মভূমি সম্পাদক রতন তালুকদার,সাপ্তাহিক প্রবাস সম্পাদক মুহাম্মদ সাঈদ, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ও ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সেক্রেটারি মনোয়ারুল ইসলাম, সাউথ এশিয়ান সলিডারিটি ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ইমরান আনসারী,সাপ্তাহিক আজকালের সহযোগী সম্পাদক হাসানুজ্জামান সাকী, প্রথম আলো নর্থ আমেরিকার  রিপোর্টার ও এক্টিভিটস  সাহেদ আলম, প্রেসক্লাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক ও সাপ্তাহিক দেশবাংলার মোঃ আলমগীর সরকার,সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী মুহাম্মদ কাজল,কার্যকরী সদস্য ও সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকার বার্তা সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ,বিশেষ প্রতিনিধি শেখ সিরাজুল ইসলাম,ইয়র্ক বাংলা সম্পাদক রশীদ আহমদ,সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকার সাবেক সহকারী সম্পাদক এমদাদ হোসেন চৌধুরী দীপু, টাইম টিভির সিনিয়র ক্যামেরাম্যান আনোয়ার হোসেন বাবু প্রমূখ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.