নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর দাবি ঠিক নয়: ফেইসবুক

মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপ আর ডিভাইস নির্মাতা অন্যান্য বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত ডেটা শেয়ার নিয়ে মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে ফেইসবুক। এ ধরনের যে কোনো লিংক শক্তভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয় আর এটি ব্যবহারকারীদের অনুমতির উপর অনেক বেশি নির্ভর করে বলে দাবি বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যমটির।

 

সোমবার লেনদেন শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত হিসাব অনুযায়ী ফেইসবুকের শেয়ারমূল্য ১.৩ শতাংশ কমে প্রতি শেয়ারের মূল্য ১৯১.৫০ ডলারে গিয়ে ঠেকে, বলা হয়েছে রয়টার্স-এর প্রতিবেদনে।

 

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর আলোচিত প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, আগের দশ বছরে অ্যাপল, অ্যামাজন, মাইক্রোসফট এবং স্যামসাংসহ অন্তত ৬০টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তথ্য শেয়ারের চুক্তি করেছে ফেইসবুক। এই চুক্তির মাধ্যমে স্পষ্ট সম্মতি ছাড়াই প্রতিষ্ঠানগুলোকে ফেইসবুক গ্রাহকের সম্পর্ক, রাজনৈতিক পক্ষপাত, শিক্ষাগত যোগ্যতা, ধর্ম এবং আসন্ন ঘটনাবলীবিষয়ক তথ্য ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

 

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের অনুমতি ছাড়াই তাদের বন্ধুদের ডেটাতেও প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রবেশাধিকার দিয়েছে। এমনকি বাইরের কারও সঙ্গে এ ধরনের তথ্য আর শেয়ার না করার ঘোষণা দেওয়ার পরও এ কাজ করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় প্রতিবেদনে।

 

ফেইসবুকের পণ্য অংশীদার বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট ইমে আরচিবং এক ব্লগ পোস্টে বলেছেন, “নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর করা দাবিগুলোর সঙ্গে সাংঘর্ষিক, ছবি বা বন্ধুদের এমন তথ্য ডিভাইসগুলোতে শুধু তখনই অ্যাকসেস করা যেত যখন কেউ তাদের বন্ধুদের সঙ্গে এসব তথ্য শেয়ারের সিদ্ধান্ত নিত।” তিনি আরও বলেন, থার্ড পার্টি ডেভেলপারদের ডেটা ব্যবহার থেকে এই ঘটনাগুলো “অনেক ভিন্ন।”

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *