নিজেদের নির্দোষ দাবি করে তিন সহযোগীর নাম জানালো সাইফুর ও অর্জুন

প্রকাশিত:সোমবার, ২৮ সেপ্টে ২০২০ ০৫:০৯

নিজেদের নির্দোষ দাবি করে তিন সহযোগীর নাম জানালো সাইফুর ও অর্জুন

সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে গৃহবধূ ধর্ষণের মামলায় প্রধান আসামীসহ দুই আসামীর রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। তবে রিমান্ড শুনানীকালে আসামী সাইফুর রহমান ও অর্জুন লস্করের পক্ষে কোন আইনজীবী উকালত নামা আদালতে দাখিল করেননি।
শুনানীকালে আদালতের বিচারক সাইফুর ও অর্জুনের পক্ষে কোন আইনজীবী না পেয়ে তাদের বক্তব্য জানতে চাইলে তারা দুজন আদালতকে জানায়, ছাত্রাবাসের ঘটনার সাথে আমরা জড়িত নই। আমরা কোন অপরাধ করিনি। এই ঘটনা ঘটিয়েছে রাজন, তারেক ও আইনউদ্দিন। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টা থেকে আদালত এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশি পাহারার প্রিজন ভ্যানে করে বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে সাইফুর ও অর্জুনকে আদালতে নিয়ে আসা হয়। এরপর দুপুর ১২টার দিকে আদালত এই আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন রাষ্ট্রপক্ষের এপিপি অ্যাডভোকেট খোকন কুমার দত্ত জানান, আদালতে রিমান্ড শুনানীকালে আসামীদের পক্ষে কোন আইনজীবী উকালত নামা দাখিল করেননি। তবে বাদী পক্ষের হয়ে বেশ কয়েকজন আইনজীবী শুনানীকালে উপস্থিত ছিলেন। আদালত তাদের বক্তব্য শুনতে চাইলে তারা আদালতকে জানায় ছাত্রাবাসের ঘটে যাওয়া ঘটনার সাথে তাদের কোন সম্পৃক্ততা নেই। তারা অপরাধ করেনি। ঘটনা ঘটিয়েছে রাজন, আইনউদ্দিন ও তারেক। তাদের বক্তব্য শুনার পর পরই আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বাদী পক্ষের হয়ে শুনানীতে অংশ নেয়া অ্যাডভোকেট ইফতেখার আলম শোয়েব বলেন, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ৭দিনের রিমান্ড আবেদন করেন ২জন আসামীর বিরুদ্ধে। এসময় আদালতের এজলাসে উপস্থিত আইনজীবী কয়েকজন পুলিশের রিমান্ড আবেদনের সাথে একমত পোষণ করে আদালতে যুক্তি দেখান। পরে আদালত তাদের ৫দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এই সংবাদটি 1,236 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •