পর্দা উঠলো শীতকালীন অলিম্পিকের

জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পর্দা উঠলো দ্যা গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ শীতকালীন অলিম্পিক গেমসের। দক্ষিণ কোরিয়ায় ১৭ দিন ব্যাপী এই ইভেন্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মুন জে ইন। ঐতিহাসিক এ আসরে অংশ নিচ্ছে উত্তর কোরিয়াও। আর এ গেমসের মধ্যে দিয়ে অবসান হয়েছে দুই কোরিয়ার মধ্যে চির বৈরি সম্পর্কের।

 

যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, সিঙ্গাপুর, চীন, মালয়েশিয়াসহ একের পর এক দেশের ক্রীড়াবিদরা আলোকিত স্টেডিয়ামে অংশ নেন মার্চপাস্টে। সব দলের শেষে আসে সেই কাঙ্ক্ষিত ক্ষণ। মঞ্চ আলো করে এক ছাতার নিচে হাজির দুই কোরিয়ার ক্রীড়াবিদরা। সবার পরনে শান্তির প্রতীক সাদা পোশাক।

 

মার্চপাস্ট শেষে সফলভাবে গেমস আয়োজনের প্রত্যয়ের কথা জানান আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রধান থমাস বাখ। তিনি বলেন, ‘একসঙ্গে আজ দুই কোরিয়ার ক্রীড়াবিদরা সব বৈরি সম্পর্ক দূর করে শান্তির বার্তা দিয়েছে। আমরা এদিনটির জন্যই অপেক্ষা করছিলাম। আশা করছি আগামীদিনগুলোতে গেমসে এভাবে তারা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নিবে।’

 

 

 

এরপর আনুষ্ঠানিকভাবে গেমসের উদ্বোধন ঘোষণা করেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে ইন। মুন জে ইন বলেন, ‘আনুষ্ঠানিকভাবে গেমসের উদ্বোধন ঘোষণা করছি। সবাইকে সুন্দরভাবে অংশ নেয়ার জন্য ধন্যবাদ।’

 

আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন শেষে গেমসের মশাল প্রজ্বলন করেন ২০১০ সালে দক্ষিণ কোরিয়াকে ফিগার স্কেটিংয়ে স্বর্ণ উপহার দেয়া ইউনা কিম। সবশেষে জমকালো আতশবাজি আর আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে নানা প্রদর্শনী মন্ত্রমুগ্ধ করে রাখে পুরো দুনিয়ার ক্রীড়া প্রেমীদের।

 

এদিকে এই আসরে ১৫টি ডিসিপ্লিনে ১০২টি ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। ৯৩ টি দেশের প্রায় তিন হাজার অ্যাথলেট অংশ নিচ্ছেন। ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্দা নামবে আসরটির।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *