ফের চীনে কিম জং উন

অত্যন্ত গোপনীয়তার সঙ্গে গত মার্চে রহস্য ঘেরা এক ট্রেনে চেপে চীন সফরের পর আবারো বেইজিংয়ে গেছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। মঙ্গলবার চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদসংস্থা সিনহুয়া বলছে, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বন্দর নগরী দালিয়ানে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে আবারো স্বাক্ষাৎ করেছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা।

 

দালিয়ানে জনগণের চলাচল ও ট্রাফিক ব্যবস্থায় ব্যাপক কড়াকড়ি আরোপের ঘটনায় কিমের এ সফর ঘিরে নানা জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। উত্তর কোরিয়া এবং চীন সীমান্তের কাছেই দালিয়ান শহরের অবস্থান। শহরের কাছের একটি বিমানবন্দরে কিমকে বহনকারী উত্তর কোরিয়ার একটি বিমান ও একটি কার্গো বিমান দেখা যায়।

 

তীব্র কূটনৈতিক উন্মত্ততার পর গত মার্চে বেইজিং সফর করেন কিম জং উন। ২০১১ সালে দেশটির ক্ষমতায় আসার পর সেটিই ছিল তার প্রথম বিদেশ সফর।

 

 

 

পরে গত ২৭ এপ্রিল দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের সঙ্গে স্বাক্ষাৎ করতে দুই কোরিয়ার সীমান্তের যুদ্ধবিরতি গ্রাম পানমুনজম পেরিয়ে দক্ষিণে প্রবেশ করেন কিম জং উন।

 

ওই বৈঠকে কোরীয় দ্বীপকে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের অঙ্গীকার করেন উত্তর কোরিয়ার এ প্রেসিডেন্ট।

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আগামী মাসে বৈঠকের আগে চীনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কিম জং উন উষ্ণ বৈঠক করলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

শি জিনপিং-কিমের বৈঠকের ব্যাপারে সিনহুয়া ঘোষণা দেয়ার পরপরই ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় বলেন, তিনি বন্ধু শি জিনপিংয়ের জন্য কয়েক ঘণ্টার মধ্যে কথা বলবেন।

 

টুইটে তিনি বলেন, ‘তাদের প্রাথমিক আলোচনার বিষয় হবে বাণিজ্য, যাতে ভালো কিছু ঘটবে। এবং আলোচনায় উত্তর কোরিয়াও থাকবে; যেখানে বিশ্বাস এবং সম্পর্ক তৈরি হচ্ছে।’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.