বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেননি মওদুদ

প্রকাশিত: ২:৪৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০১৯

বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেননি মওদুদ

আইনমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও ব্যারিস্টার মওদুদ বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেননি বলে মন্তব্য করেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। রোববার সচিবালয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ককালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

 

ড. আব্দুর রজ্জাক বলেন, ‘মওদুদ বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেননি। পরে আইন করে বিচার বন্ধ করেছিলেন। সে আইন বাতিল করা হয়েছে, তারপরও এই হত্যাকাণ্ডের বিচার হয়নি। তারা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে ছিলেন, বঙ্গবন্ধুর আলোয় আলোকিত ছিলেন। এরশাদ ক্ষমতায় এলে জাতীয় পার্টিও করেছেন। এরশাদ চলে যাওয়ার পর গণতন্ত্রের লেবাস পরে বিনপিতে চলে গিয়েছিলেন।’

 

তিনি আরো বলেন, ‘মাওদুদরা হলেন এদেশের ইভিল জিনিয়াস শয়তান। এই শয়তানদের জন্য দেশটা পিছিয়ে গেছে। যে আদর্শে দেশ স্বাধীন হয়েছিল, সেটি অব্যাহত থাকলে দেশ এগিয়ে যেত, সেজন্য আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় থাকতে হবে তা নয়। সকল মানুষের জন্য ন্যায়ভিত্তিক সমাজ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।’

 

সে সময় তিনি আরো বলেন, ‘সঠিক ইতিহাস জানা দরকার। সঠিক ইতিহাস না জানলে জাতি বিভ্রান্ত হয়। ১৯৯৬ পর্যন্ত একটানা সামরিক শাসকদের দ্বারা দেশ পরিচালিত হয়েছে। বিএনপি যতবার ক্ষমতায় এসেছে, ততবারই তারা ৭৫ এর খুনি ও ৭১ এর পরাজিত শক্তির স্বার্থ বাস্তবায়ন করেছে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে সরাসরি জড়িত।’

 

দেশে দু’টি ধারা চলছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘একটি স্বাধীনতার পক্ষের ধারা। অপরটি স্বাধীনতার বিরোধীদের ধারা।’

 

চাল রপ্তানি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘ফিলিপাইনে চালের দাম বেশি ছিল। তারা চাল আদানি করেছে প্রায় ১৪ লাখ মেট্রিক টন। ফলে সেখানে চালের দাম কমে গেছে। এখন সে দেশের সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চাল রপ্তানি করবে। আমরা চাল রপ্তানি করলে কঠিন অবস্থার মধ্য দিয়ে যেতে হবে। সে জন্য সেদিকে নজর রাখতে হবে।’

 

বন্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বন্যা বাংলাদেশের জন্য কল্যাণ বয়ে আনে, আবার ক্ষতিও করে। আগে ফসল ছিল বৃষ্টি নির্ভর। সবমিলিয়ে যে বৃষ্টি হয় তা নিয়েই আমাদের পানির স্তর যথেষ্ট।’

 

তিনি বলেন, ‘কৃষিতে আমাদের বাজেট ১২০ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কৃষির জন্য টাকার কোনো অভাব হবে না। আরো বেশি টাকা লাগলেও দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •