ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ

পদত্যাগ করেছেন ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাম্বার রুড। রোববার পদত্যাগ করেন তিনি। যুক্তরাজ্যে অভিবাসীদের দেশত্যাগে কোটা সংরক্ষণ বিষয়ে সরকার কতৃক গঠিত কমিটিতে অসাবধানতাবশত ভুল হয়েছে বলে পদত্যাগপত্রে উল্লেখ করেন রুড। প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। সোমবার অ্যাম্বার রুডের পরবর্তী উত্তরসূরীর নাম ঘোষণা করা হতে পারে। খবর সিএনএন, বিবিসি।

 

গত রোববার গার্ডিয়ান পত্রিকায় রুডের লেখা একটি চিঠি প্রকাশ করা হয়। সেখানে রুড বলেন, আগামী কয়েক বছরে তিনি ১০ শতাংশের বেশি অবৈধ অভিবাসীদের দেশত্যাগের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে উচ্চাভিলাসী ছিলেন। রোববার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-কে ফোন করে পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা জানান রুড।

 

 

 

আগামী কয়েক বছরে দশ শতাংশ বেশি অবৈধ অভিবাসীকে ব্রিটেন থেকে বের করে দেওয়ার পরিকল্পনা ফাঁস হওয়ার জের ধরে বিরোধীদের সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন রুড। নিজের পদত্যাগের চিঠিতে রুড বলেন, অবৈধ অভিবাসী হিসেবে চিহ্নিত করতে যাদের টার্গেট করা হয়েছে তাদের বিষয়ে তার কার্যালয়কে দেওয়া তথ্যের বিষয়ে সতর্ক না থাকার সম্পূর্ণ দায় নিচ্ছেন তিনি।

 

রুড আরও বলেন, নির্বাচন কমিটির কাছে হাজির হওয়ার পূর্বে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আমাকে যে উপদেশ দেয়া হয়েছিল তা আমি পূনর্বিবেচনা করেছি এবং এ বিষয়ে আমার কার্যালয়কে দেয়া তথ্যের বিষয়েও আমি অবগত হয়েছি। এ বিষয়ে আমার আরও সতর্ক হওয়া উচিৎ ছিল। এরপরেও যদি কোনো ভুল-ক্রুটি থেকে যায় তার দায়-দায়িত্ব আমার।

 

প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রুডের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। তবে তিনি পদত্যাগপত্র গ্রহণের সময় বলেন, এটা গ্রহণ করা আমার জন্য খুবই দুঃখজনক। তবে আমি আপনার পদত্যাগের কারণ বুঝতে পারছি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.