ভারতে অর্ধকোটি নারীর ৬২০ কিমি মানববন্ধন

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ কেরালায় নারীরা দেশটির বহুল আলোচিত সবরিমালা মন্দিরে প্রবেশাধিকার নিয়ে নজিরবিহীন এক প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এ বৈষম্যের প্রতিবাদে ৬২০ কিলোমিটার (৩৮৫ মাইল) দীর্ঘ মানববন্ধন করেছেন রাজ্যটির নারীরা। শনিবার মানবাধিকারের একটি গ্রুপ ওই মানববন্ধনের আয়োজন করে। মন্দিরটিতে ঋতুমতি (বয়স ১০ থেকে ৫০) মেয়েদের প্রবেশ আটকাতে রাজ্যের বিজেপি নেতারা এখনও অনশন কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন।

কেরালার প্রায় ৫০ লাখ নারী একযোগে রাজ্যের সব সড়কে মানববন্ধনে অংশ নেন। মানববন্ধনটি অঙ্গরাজ্যটির উত্তরাঞ্চল কাসারদগোদ থেকে শুরু হয়ে দক্ষিণের থিরুভানধাটুরামে শেষ হয়।

আয়োজকরা আশা করেছিলেন, তারা কমপক্ষে ৩০ লাখ নারীর সমাগম করতে সক্ষম হবেন। তবে তাদের প্রত্যাশারও ২০ লাখ ছাড়িয়ে যায় মানববন্ধনে নারীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ।

এদিকে বুধবার সকালে বহুল আলোচিত ওই মন্দিরে প্রবেশ করে ইতিহাস গড়েছেন দুই নারী। মন্দিরটিতে এতদিন ঋতুমতি নারীদের প্রবেশাধিকার ছিল না। সুপ্রিমকোর্ট কয়েক মাস আগে সেই রায় দেন।

পুলিশ জানায়, বুধবার ভোরের দিকে পাহাড়ে ঘেরা মন্দিরে প্রবেশ করেন ওই দুই নারী। দুজনেরই বয়স চল্লিশের আশপাশে।

জানা গেছে, ভোর পৌনে ৪টা থেকে পাম্বা বেস ক্যাম্প থেকে পাহাড়ে ওঠা শুরু করেন তারা। আর তারপরই পৌঁছে যান ভগবান আয়াপ্পার এ মন্দিরে। ঋতুমতি নারীদের প্রবেশের পর ‘শুদ্ধিকরণের’ জন্য মন্দির বন্ধ করে দেয়া হয়।

সেপেম্বরে ভারতের শীর্ষ আদালত সবরিমালা মন্দিরে নারীদের ওপর আরোপিত বাধানিষেধ তুলে নিলেও রক্ষণশীলরা নারীদের প্রবেশের প্রতিবাদে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

সূত্র: এনডিটিভি