মির্জা ফখরুল বললেন জাতিসংঘের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন দেশের বর্তমান অবস্থা জাতিসংঘের কাছে তুলে ধরেছেন  । তিনি বলেন, আলোচনা করে সবকিছুই বলেছি। তারা (জাতিসংঘ) বিষয়গুলো দেখবে বলেছে।

আজ সোমবার রাতে দলের স্থায়ী কমিটির সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কথা বলেন। তিনি বলেছেন, ‘জাতিসংঘের কাছে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি বলেছি। জাতিসংঘ এ ব্যাপারে কিছু জানতে চেয়েছে, সেগুলো আমরা জানিয়েছি।’

বর্তমানে গণতন্ত্র যে হুমকির মুখে, সে বিষয়ে জাতিসংঘের মনোভাব কেমন—এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আলোচনা করেছি, সবকিছু বলেছি। তারা বিষয়গুলো দেখবে বলেছে।’

ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘এটা পরিষ্কার যে জাতিসংঘের মহাসচিবের আমন্ত্রণে আমি জাতিসংঘে গিয়েছিলাম। যেহেতু কফি আনান (সাবেক মহাসচিব) সাহেবের শেষকৃত্য অনুষ্ঠান ছিল, তিনি (বর্তমান মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস) চলে গিয়েছিলেন। আমরা জাতিসংঘের যিনি দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন, অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল, তাঁর সঙ্গে কথা বলেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি দৃঢ়তার সঙ্গে বলতে চাই, জাতিসংঘের যে চার্টার আছে, সেই চার্টারের মধ্যে পরিষ্কার বলা আছে, সদস্য দেশের সরকার, বিরোধী দল, রাজনৈতিক দল, ব্যক্তি ও সংগঠনের যে কেউ তাদের যেকোনো বিষয় উত্থাপন করতে পারে।’ দেশ নিয়ে বিভিন্ন বিষয় জাতিসংঘকে অবহিত করতে তিনি সেখানে গিয়েছিলেন বলেও জানান।

লন্ডনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছে কি না, জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘হ্যাঁ, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সঙ্গে আমার লন্ডনে দেখা হয়েছে। আলোচনা হয়েছে দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে।’

বিএনপির মহাসচিব গত বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে এবং ওয়াশিংটনে স্টেট ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তাদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকের বিষয়টি স্থায়ী কমিটির সদস্যদের অবহিত করেন।

বৈঠকে স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মাহবুবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।