মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক নয়, মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে ছিলেন রাগীব আলী

প্রকাশিত:শনিবার, ১৩ আগ ২০১৬ ১০:০৮

মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক নয়, মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে ছিলেন রাগীব আলী

সিলেট প্রতিনিধি:
শিল্পপতি ও কথিত দানবীর রাগীব আলী সাম্প্রতিক সময়ে নিজেকে ‘প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক’ হিসেবে পরিচয় দেন। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে প্রবাসে থেকেই তিনি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে কাজ করেন বলে তার দাবি। কিন্তু তার এ দাবিতে ক্ষুব্দ সিলেটের মুক্তিযোদ্ধারা। তাদের মত, রাগীব আলী মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক নন, তিনি মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী।

বিগত মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কাজ শুরু হয়। ঠিক ওই সময় থেকে নিজের বলয়ের কিছু লোক দিয়ে নিজেকে ‘প্রবাসের মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক’ হিসেবে প্রচার করতে থাকেন রাগীব আলী। মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক হিসেবে নিজ বলয়ের কিছু লোকের মাধ্যমে সংবর্ধনাও নেন রাগীব আলী।

কিন্তু সিলেটের মুক্তিযোদ্ধারা রাগীব আলীর এমন কর্মকাণ্ডে ক্ষুব্দ। তাঁদের দাবি, রাগীব আলী মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে কাজ করেছিলেন।

সিলেট জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল বলেন, রাগীব আলী মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক তো ননই, তিনি স্বাধীনতা বিরোধী। দেশবিরোধী রাজাকার, আলবদরদের সহযোগিতা করেছিলেন রাগীব আলী। এছাড়া জামায়াত-শিবিরের অর্থের যোগানদাতাও তিনি। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে এসবের প্রমাণ বের করা সম্ভব।

মুক্তিযোদ্ধাদের কথার প্রতিধ্বনি বিশ্বের ২৬১টি ভাষায় প্রকাশিত ইন্টারনেটভিত্তিক বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়াতেও। সেখানে রাগীব আলী সম্পর্কে লেখা আছে, ‘‘রাগীব আলী সম্পর্কে বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে। এর মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের সময় বিদেশে থেকে দেশের বিরুদ্ধে কাজ করা, যুদ্ধাপরাধীদের সহায়তা করা ও হিন্দুদের দেবোত্তর সম্পত্তি দখল প্রভৃতি অন্যতম।’

এদিকে রাগীব আলী যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের সংগঠন আঞ্জুমানে খেদমতে কোরআন’র পৃষ্ঠপোষক বলেও জানা গেছে। এমনকি রাগীব আলীই এরশাদ সরকারের আমলে সিলেটে অবাঞ্চিত যুদ্ধপরাধে দণ্ডিত জামায়াত নেতা দেলওয়ার হোসাইন সাঈদীকে চ্যালেঞ্জের মুখে সিলেট নিয়ে আসেন।

এই সংবাদটি 1,225 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •