মোংলা পশু নদীতে ট্যুরিস্ট লঞ্চ ডুবি

প্রকাশিত: ৯:০৪ পূর্বাহ্ণ, মে ২১, ২০২০

মোংলা পশু নদীতে ট্যুরিস্ট লঞ্চ ডুবি
মোংলা প্রতিনিধি
ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে মোংলার পশুর নদীতে একটি ট্যুরিস্ট লঞ্চ ডুবে গেছে। এছাড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠাসহ কাঁচা ঘরবাড়ী ও গাছপালার ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। প্লাবিত হয়েছে কয়েকটি গ্রাম ও অসংখ্য চিংড়ি ঘের । অনেক জায়গায় ইটের সোলিং রাস্তাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বৃস্পতিবার দিনে মোংলা সমুদ্র বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত নামিয়ে ৩ নস্বও স্থানীয় সতর্ক সংকেত জারী করা হয়েছে। তবে এখনো এ এলাকার উপর দিয়ে মাঝারী ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়া অব্যাহত রয়েছে। এদিকে বন্দরের মালামাল ওঠানামার কাজসহ সকল অপারেশন কাজ এখনো বন্ধ রয়েছে।
উপজেলা নিবার্হী অফিসার মো: রাহাত মান্নান বলেন, সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নেয়া লোকজনের মাঝে বৃহস্পতিবার সকালেও খাবার বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার দিনে এবং রাতে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে নেয় ৪৮ হাজার মানুষ। ঝড় কিছুটা কমে যাওয়ায় তারা এখন নিজ বাড়ীঘরে চলে যাচ্ছেন। তবে ঝড়ে প্রকৃত ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের তালিকা পাওয়ার পর জানানো হবে বলেও জানান তিনি।
মোংলা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাহিদুজ্জমান জানান, ঘুর্ণি ঝড়ে পৌর এলাকা সহ উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে ১২৫টি বসত ঘর সম্পুর্ণ এবং ৫শ’২৬টি আশিংক ক্ষতি হয়েছে। ভেড়ি বাঁধ ভেঙ্গে পশুর নদীর তীরবতর্ী কানাইনগর, কলাতলা, সুন্দরতলাসহ বিভিন্ন জায়গার দুর্বল ভেঁড়ী বাঁধের কয়েকটি জায়গা ধ্বসে পানিতে তলিয়ে গেছে। ঘুর্নঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ ২ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তার আওতায় এনে ১০ কেজি করে চাল বিতরন করা হচ্ছে।
আবহাওয়া অফিসের দেয়া পূবার্ভাস অনুযায়ী কয়েক ফুট উচ্চতার জলোচ্ছাসের কথা বলা হলেও মোংলা সমুদ্র বন্দরের পশুর চ্যানেলসহ সুন্দরবনের নদ-নদীর পানির উচ্চতা স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা বৃদ্ধি পায়। এ ছাড়া পানিতে অসংখ্য চিংড়ি ঘের তলিয়ে যাবার খবর পাওয়া গেছে।  উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা এ জেড এম তৌহিদুর রহমান জানান, চিংড়ি অধ্যুষিত মোংলা দুই সহস্রাধিক চিংড়ি ঘের সম্পূর্ণ ভেসে গেছে। এদিকে আম্পানের তান্ডবে সুন্দরবনের ঢাংমারী ষ্টেশন, লাউডোব, দুবলা ও মরাপশুর ক্যাম্পের জেটি, ঘরবাড়ীসহ অন্যান্য স্থাপনা এবং বনের গাছপালার বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সুন্দরবনের ভেতরে মিষ্টি পানির পুকুর প্লাবিত হয়েছে। এছাড়া বনপ্রহরীদের জব্দকৃত কাঠ জোয়ারের তেড়ে ভেসে গেছে  বলে জানিয়েছে পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকতার্ মো: বেলায়েত হোসেন। তবে এতে কোন জেলে নৌকা ডুবি, জেলে নিঁখোজ কিংবা হতাহতের খবর নেই বলেও জানান তিনি।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •