যুক্তরাষ্ট্রের আটলান্টায় ‘অপটিমিস্টস’ এর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

যুক্তরাষ্ট্রের আটলান্টায় প্রবাসীদের সেবা সংগঠন অপটিমিস্টস’এর উদ্যোগে এক মুক্ত আলোচনা ও মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

চলতি সপ্তাহের রোববার দুপুরে আটলান্টার মনসুন মাসালা কিচেন অ্যান্ড সুইটস রেস্তোরাঁয় ওই সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

 

এতে নিউ ইয়র্ক থেকে আগত অপটিমিস্টস এর ভাইস চেয়ারম্যান মিনহাজ আহমদ, সদস্য সচিব শামীম আহমদ ও স্বেচ্ছাসেবক স্বপ্না আহমদ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

 

অপটিমিস্টসের নেতারাসহ আটলান্টার বাংলাদেশি কমিউনিটির সংগঠক, স্থানীয় স্পনসর, সমর্থক ও শুভানুধ্যায়ীদের উপস্থিতিতে উক্ত সভাটির আয়োজনে ও সঞ্চালনায় ছিলেন স্থানীয় পৃষ্ঠপোষক আবু লিয়াকত হুসেন।

 

প্রারম্ভিক বক্তব্যে আবু লিয়াকত হুসেন অপটিমিস্টস এর সেবামূলক কাজে তার আগ্রহ সৃষ্টি ও আস্থা অর্জনের কারণ ব্যাখ্যা করেন এবং সংগঠনটির আহ্বানে উপস্থিত হওয়ার জন্য সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

 

এর পরপরই অপটিমিস্টস্-এর কর্মকাণ্ড সম্পর্কে তিনটি প্রমাণ্য ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। ভিডিওগুলিতে বাংলাদেশের দরিদ্র অসহায় শিশুদেরকে দুর্দশাগ্রস্ত ও হতাশার অন্ধকার থেকে মুক্ত করার জন্য অপটিমিস্টস কীভাবে কতোটা সফল ভূমিকা রাখছে তার চলচ্চিত্রায়ন তুলে ধরা হয়।

ভাইস চেয়ারম্যান মিনহাজ আহমদ তার বক্তব্যে অপটিমিস্টস এর বিগত ১৭ বছরের নানামুখী সেবা কর্মের ইতিহাস, কর্মসূচী, কর্মপদ্ধতি ও সাফল্যের কথা প্রাঞ্জল ভাষায় উপস্থাপন করেন।

 

স্থানীয় অপটিমিস্ট স্পনসর এমাদ আহমদ তার বক্তৃতায় তার ছাত্রজীবনের এক মেধাবী সহপাঠীর কথা স্মরণ করে বলেন, “শুধু দারিদ্র্যের কারণেই তার সেই সহপাঠী বন্ধুটি শিক্ষাজীবননের গতিকে অব্যাহত রাখতে পারেনি। আজ এইরকম দরিদ্র, মেধাবী ও সম্ভাবনাময় শিক্ষার্থীদের সহায়তা দিতে অপটিমিস্টস পাশে দাঁড়াতে পারছে।”

 

কম্যুনিটি ব্যক্তিত্ব সুভাষ চক্রবর্তী অপটিমিস্টস-এর একেকটি শিশুর স্বাভাবিক নিয়মে বেড়ে উঠার দায়িত্ব নেওয়া সকল স্পনসর এবং অপটিমিস্টস-এর জন্যে যারা কাজ করছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

 

শাকিলা নাসরিন এমন একটি কল্যাণধর্মী সংগঠন সম্পর্কে জানার সুযোগ করে দেবার জন্য কৃতজ্ঞতা জানিয়ে অপটিমিস্টস-এর স্পনসর হওয়া ছাড়াও অন্যান্য বিষয়ে সহায়তা করার প্রতিশ্রুতি দেন।

 

 

নাসর সেবা সংগঠনের সভাপতি আউয়াল ডি খান অপটিমিস্টস-এর সাথে একযোগে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

সংগঠক দিদারুল আলম গাজী ও জর্জিয়া সোশ্যাল অ্যান্ড কালচারাল অর্গানাইজেশনের সভাপতি মোহন জব্বার   অপটিমিস্টস এর কাজের প্রশংসা করে এটিকে মানুষের সেবায় আরও গ্রহণযোগ্য করে তুলতে সকল প্রকার সহযোগিতা দিয়ে পাশে থাকবেন বলে উল্লেখ করেন।

 

সবশেষে অপটিমিস্টস এর সদস্য সচিব শামীম আহমেদ সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সকল স্পনসরদেরকে পরিচয় করিয়ে দেন এবং এই সুন্দর আয়োজনের জন্যে আটলান্টার সহযোগীদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

শামীম পরে এক প্রশ্নের উত্তরে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ইতোমধ্যে নিউ ইয়র্কের অল্প আয়ের পরিবারের স্কুল ছাত্রদের স্কুল সাপ্লাই সংগ্রহে সহায়তা করার উদ্যোগ নিয়েছে ‘দি অপটিমিস্টস’।”

 

এই সহায়তা নিতে ইচ্ছুক পিতামাতাকে ২৫ ডিসেম্বরের মধ্যে 7017 37th Ave # 1, Jackson Heights, NY 11372 ঠিকানায় অপটিমিস্টস-এর প্রেসিডেন্ট ফেরদৌস খন্দকারের ক্লিনিকে সন্তানের স্কুল আইডি বা রিপোর্ট কার্ড এবং বৈধ মেডিকেইড কার্ড বা সাম্প্রতিক ট্যাক্স রিটার্নের কপি নিয়ে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

 

জর্জিয়ার অনুষ্ঠানে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি স্কুল ও কলেজগামী দরিদ্র শিক্ষার্থীর পড়ালেখার স্পন্সর হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে অনেককেই অপটিমিস্টস-এর সাথে একাত্মতা প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.