যুক্তরাস্ট্রে বাংলাদেশ ছাএলীগের সাবেক নেত্রী বৃন্দ উদযাপন করলো বাংলাদেশ ছাএলীগের ৭৩তম জন্ম দিবস

প্রকাশিত:বুধবার, ০৬ জানু ২০২১ ০৯:০১

যুক্তরাস্ট্রে বাংলাদেশ ছাএলীগের সাবেক নেত্রী বৃন্দ উদযাপন  করলো বাংলাদেশ ছাএলীগের ৭৩তম জন্ম দিবস
হাকিকুল ইসলাম খোকন : গত ৪ঠা জানুয়ারী ২০২১ স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭:০০ টায় যুক্তরাষ্ট্রে ছাএলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দ যথাযথ ভাবগাম্ভীর্য এবং বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার সঙ্গে পালন করল অনলাইন জুমের  মাধ্যমে এক ভার্চুয়াল স্মৃতিচারনে বাংলাদেশ ছাএলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বাষির্কি । অনুষ্টানটি বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক ছাএ নেতাদের  উপস্হিতিতে অনুষ্ঠিত হয়।উক্ত আলোচনায় সভাটি সঞ্চালন করেন যুক্তরাষ্ট্র  ছাএলীগের সহ সভাপতি শহিদুল ইসলাম ।সভাপতি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের বর্ষীয়ান নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. প্রদীপ রঞ্জন কর।
সভার প্রারম্ভে স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধসহ সকল শহীদের স্মরণে ও  শ্রদ্ধা জানাতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। সকলের পক্ষ থেকে ড: প্রদীপ রঞ্জন কর  স্বাধীনতার মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন । এরপর নেএী বৃন্দের পক্ষ থেকে দেশ ও জাতির ক্রান্তিলগ্ন, স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ সকল শহীদের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া ও প্রার্থনা করেন মুক্তিযাদ্ধা মুন্সি বসির উদ্দিন ।
বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. প্রদীপ রঞ্জন কর ভার্চুয়াল সভায় অংশগ্রহণকারী মুক্তিযোদ্ধাগণ সহ উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে ছাএলীগের ঐতিহ্যবাহী তাৎপর্য নিয়ে বক্তব্য প্রদানের অনুরোধ করেন ।সভায় অনেক বীর মুক্তিযোদ্ধাদের উপস্থিতিত আলোচনায় উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাগণ মুক্তিযুদ্ধ সময়কালের বিভিন্ন ঘটনার আলোচনা তথা ছাএলীগের বিভিন্ন মুখি কাজ কর্মে অংশ গ্রহণ সহ মহান মক্তি যুদ্ধে ছাএ নেতাদের বিভিন্ন ভুমিকার আলোচনায় আবেগময় পরিবেশ তথ্য সম্বলিত বক্তব্য র মাঝে ও প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছিল। সাবেক ছাএলীগের নেতৃবৃনদ তাদের বক্তব্যে তে বাংলাদেশে ছাএলীগ সৎ বিনয়ি দেশ গড়ার কাজে মনোনিবেশ এবং জন নেত্রী শেখ হাসিনার ভ্যানগাড হিসেবে কাজ করার করার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।এবং সংগঠনটির সৃষ্টি লগ্নের ধারায় কাজ করার উপদেশ দেন।
এই সভায় প্রায় সকল বক্তাই তাদের বক্তব্যে বর্তমান সময়ে বাংলাদেশে কিছু স্বাধীনতা বিরোধী সার্থান্মেষী মহল ও ধর্ম ব্যাবসায়ী মোর্চা কর্তৃক স্বাধীনতার মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রদান ও তাঁর ভাস্কর্য ভাঙার বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানানো হয় । বঙ্গবন্ধু ও ছাএলীগ বাংলাদেশের ইতিহাসে একই সূএে গাঁথা। বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে কথা বলা বা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রদান ও তা ভাংচুর রাষ্ট্রদ্রোহিতা শামিল।
ভার্চুয়াল সভায় অলোচনায় যারা অংশগ্রহণ করেন তাদের মধ্যে ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. প্রদীপ রঞ্জন কর, বীরমুক্তি যোদ্ধা গোলাম মেরাজ বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মুকিত চৌধূরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন তালুকদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসাইন, বীর মুক্তিযোদ্ধা খুরশিদ আনোয়ার বাবলু,  বীর মুক্তিযোদ্ধা  মিজানুর রহমান চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা জুয়েল মোহাম্মদ জামাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা মুন্সি বশির উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, ইঞ্জিঃ আশরাফুল হক,মোর্শেদ আলম, সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন ,সাদেকুল বদরুজজামান পাননা,আদুর রহিম বাদশা, এডভোকেট শাহ মো: বখতিয়ার আলী,এমএ করিম জাহাঙ্গীর,শরীফ কামরুল আলম হীরা, অধ্যাপিকা শাহনাজ মমতাজ, শাহিন আজমল,আক্তার হোসেন, কায়কোবাদ খান,এ্যডভোকেট নিজাম উদ্দিন ,শেখ জামাল হোসেন ও ডা: কানচন,মো:কামাল সহ প্রমূখ।
অনেক ত্যাগের বিনিময়ে একাওুরে এ বিজয়ের মাধ্যমে আমরা পেয়েছি লাল সবুজের পতাকা। এর বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেএী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা গড়ে তুলবো দারিদ্রমুক্ত সুখী, সমৃদ্ধ, অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক  ডিজিটাল  বাংলাদেশ। এই হোক বাংলাদেশ ছাএলীগের জন্ম দিবসের শপথ

এই সংবাদটি 1,228 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •