রসিক কাউন্সিলর ফুলুর মিথ্যা মামলায় বাংলাটিভি প্রতিনিধি বাঁধনের জামিন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ২০ আগ ২০২০ ০৯:০৮

রসিক কাউন্সিলর ফুলুর মিথ্যা মামলায় বাংলাটিভি প্রতিনিধি বাঁধনের জামিন

রুবেল ইসলাম, রংপুর

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ফজলে এলাহী ফুলুর মিথ্যা মামলায় বাংলা টিভির রংপুর প্রতিনিধি ও রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সদস্য রাফাত হোসেন বাঁধনের জামিন মঞ্জুর করেছে আদালত। বুধবার দুপুরে রংপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-২ এর বিচারক তার জামিন মঞ্জুর করেন।

রংপুর মেট্রোপলিটন কোর্ট ইন্সপেক্টর নাজমুল আলম জানান, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফজলে এলাহী ফুলুর দায়ের করা মামলায় বুধবার দুপুরে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-২ এ জামিন আবেদন করেন বাংলাটিভির রংপুর প্রতিনিধি রাফাত হোসেন বাঁধন। শুনানি শেষে আদালতের বিচারক দেলওয়ার হোসেন তার জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার বাঁধনের বাবাসহ আরো তিনজনকে জামিন দিয়েছিলেন আদালত। সেই দিন বাঁধনের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছিল।

গত ৮ আগস্ট রাত পৌনে আটটার দিকে রংপুর মহানগরীর ৩নং চেক পোস্টে সাংবাদিক বাঁধনের বাবা সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আফজাল হোসেনের মালিকানাধীন বাঁধন ট্রেডার্সের বকেয়া টাকা চাওয়ায় প্রথমে বাঁধনের বাবাকে মারধর শুরু করে স্থাণীয় কাউন্সিলর ফুলু,পুত্র শাওন, সজল, আরিফুলসহ একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী। এ খবর শুনে সেখানে সাংবাদিক বাঁধন উপস্থিত হলে তার ওপরও হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। এ সময় সন্ত্রাসীরা বাঁধন ট্রেডার্স ভাংচুর ছাড়াও অবসরপ্রাপ্ত সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ও সদস্যদের দ্বারা পরিচালিত কনফিডেন্টস সেভিং অ্যান্ড ক্রেবিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড নামের একটি সমবায় নিবন্ধিত আর্থিক প্রতিষ্ঠানেও হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে। গুরুতর আহত অবস্থায় বাঁধন ও তার বাবাকে পুলিশের সহযোগিতায় রংপুর  হাসপাতালে ভর্তি করায় তার সহকর্মী ও স্থানীয়রা। পরে বাঁধন বাদি হয়ে কাউন্সিলর ফুলু ও হামলাকারীদের নামে ৯ আগস্ট মামলা করেন। কিন্তু পুলিশ হামলাকারীদের গ্রেফতার করেনি। উল্টো ১০ আগস্ট হামলাকারী কাউন্সিলর ফুলু উল্টো সাংবাদিক বাঁধন, তার বাবা ও কয়েকজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তার নামে মিথ্যা মামলা করেন। পুলিশ কোনো ধরনের তদন্ত ছাড়াই সেই মামলাটি গ্রহণ করেন। সেই মামলায় আদালতে বৃহস্পতিবার জামিন প্রার্থনা করলে আদালত বাঁধনের জামিন না মঞ্জুর করেছিলেন।

অন্যদিকে ওই ঘটনায় কনফিডেন্টস সেভিং অ্যান্ড ক্রেডিট কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড তাদের প্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাংচুর, লুটপাটের বিষয়ে সমিতির সভাপতি ঘটনার পরের দিনই একটি মামলা দায়ের করলেও এখন পর্যন্ত সেই মামলা গ্রহন করেনি পুলিশ।

এ বিষয়ে রংপুরে কর্তব্যরত সাংবাদিক সমাজের সদস্য সচিব ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার নজরুল ইসলাম রাজু বলেছেন, আমরা আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। বাঁধনের জামিন হওয়ায় আমরা আদলতের প্রতি কৃতজ্ঞ। তিনি বলেন, সাংবাদিক বাঁধনের ওপর হামলার ঘটনায় সাংবাদিকরা ক্ষুব্ধ ও মর্মাহত। জামিনে না থাকা হামলাকারীদের গ্রেফতার এবং অপরাপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত এবং সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আব্দুল আলীম মাহমুদ জানিয়েছেন, সমিতির মামলাটি তদন্ত কর রেকর্ড করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বাঁধনের মামলায় কাউন্সিলরের জামিন মঞ্জুর হয়েছে। অপর আসামি কাউন্সিলরের ছেলেকে গ্রেফতার করতে সাঁড়াশি অভিযান চলছে।

এই সংবাদটি 1,233 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •