লকডাউনে পাকিস্তান, খাবার পাচ্ছে না সংখ্যালঘু হিন্দুরা

প্রকাশিত: ৯:৪৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২০

লকডাউনে পাকিস্তান, খাবার পাচ্ছে না সংখ্যালঘু হিন্দুরা

করোনা ভাইরাসে মহামারি মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধ গোটা বিশ্ব। ধর্ম-মত নির্বিশেষে করোনার মহামারি ঠেকাতে দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ মানুষ। আর এমন সময় করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে লকডাউন পাকিস্তানে হিন্দুদের খাবার দেওয়া হচ্ছে না বলে খবর জানালো এএনআই।

খবরে বলা হয়, মুসলিম ধর্মাবলম্বী না হওয়ায় পাকিস্তানে হিন্দু ও খ্রিষ্টান ধর্মের সংখ্যালঘু মানুষদের খাবার বা ত্রাণ দিচ্ছে না দেশটিতে ত্রাণ বিতরণকারী কর্তৃপক্ষ।

পাকিস্তানের একজন হিন্দু অভিযোগ করে বলেন, কর্তৃপক্ষ আমাদের এই লকডাউন পরিস্থিতিতে কোন রকম সহায়তা করছে না। কারণ আমরা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ।

পাকিস্তান টেলিগ্রাফ জানায়, স্থানীয় সরকার আর জেলাসরকারের সমন্বয়ে লকডাউন পরিস্থিতিতে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে। তবে করাচীর বিভিন্ন এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের সংখ্যা লঘু মানুষদের এসব খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হচ্ছে না । কারণ তারা মুসলিম নয়। যদিও সরকার বিভিন্ন এনজিওর সহায়তা নিয়ে মেহনতি ও শ্রমজীবী মানুষদের এসব ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার কথা বলেছে।

একজন রাজনীতিবিদ ড. আমজাদ আইয়ুব মির্জা ভারত সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন যাতে, এমন পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের হিন্দু সংখ্যালঘুদের জন্য ভারত সরকার রাজস্থান হয়ে পাকিস্তানের সিন্ধে ত্রাণ পাঠায়।

তিনি দ্রুত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে বলেছেন, মানবিক এই সংকটময় মুহূর্তে পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে কমপক্ষে ৫ লক্ষ সংখ্যালঘু মানুষ বসবাস করে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •