শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো

প্রকাশিত: ৫:২২ পূর্বাহ্ণ, মে ৮, ২০২০

শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো

ইরানের রাজধানী তেহরান ও এর আশপাশের শহরগুলোতে রিখটারস্কেলে ৫.১ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে। ইরানের ভূতত্ত্ব পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ১২টা ৪৮ মিনিটে তেহরান প্রদেশের দামাভান্দ শহরে ভূমিকম্প আঘাত হানে। এটির মূলকেন্দ্র ছিল ভূগর্ভের মাত্র সাত কিলোমিটার গভীরে যা কয়েক সেকন্ডে স্থায়ী হয়।

অল্প সময় স্থায়ী হলেও ভালোরকম ঝাঁকুনিতে তেহরানের অধিবাসীদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয় এবং অনেকে বাসাবাড়ি ছেড়ে রাস্তাসহ খোলাস্থানে আশ্রয় নেন।

 

এখন পর্যন্ত ভূমিকম্পে জানমালের ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তবে তেহরান ও দামাভান্দ শহরে তড়িঘড়ি করে ঘর থেকে বের হতে গিয়ে একজন নিহত ও ২০ জন আহত হয়েছেন বলে বার্তা সংস্থা ফার্সনিউজ জানিয়েছে।৫.১ মাত্রায় আঘাত হানার আগে ২.৯ মাত্রার ভূমিকম্পে তেহরান কেঁপে ওঠে এবং এরপর আরো অন্তত ১৬ বার ভূকম্পণ অনুভূত হয়।

ইরানের জরুরি ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান জানিয়েছেন, ছোট ছোট ভূকম্পণগুলো বড় ধরনের ভূমিকম্পের আশঙ্কা কমিয়ে দিচ্ছে। তিনি তেহরানবাসীকে শান্ত থাকার আহ্বান জানান।

তেহরানের রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি জানিয়েছে, তারা পরিস্থিতি মূল্যায়নের জন্য ভূমিকম্পের মূলকেন্দ্রের কাছে একটি পর্যবেক্ষণ টিম পাঠিয়েছে।

ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুররেজা রাহমানি ফাজলি এ ভূমিকম্পে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণের জন্য দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে তেহরান সিটি কর্পোরেশন এবং জরুরি ত্রাণ ও উদ্ধার বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন।

গত দুই বছরে এটি তেহরানে সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প। ২০১৮ সালে তেহরানের নিকটবর্তী মালার্দ শহরে ৫.২ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল। এ ছাড়া, গত এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প হয় ২০১৭ সালের নভেম্বরে ইরানের পশ্চিমাঞ্চলীয় কেরমানশাহ প্রদেশে। ৭.৩ মাত্রার ওই ভূমিকম্পে কয়েকশ’ মানুষের প্রাণহানি হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ