|
সর্বশেষ
ইউসিবির কার্ডধারীদের জন্য ওয়েস্টিনের অফার         বার্মিংহামে আবু হায়দার চৌধুরী সুইট কাউন্সিলর প্রার্থী         ফুলকপি দিয়েই তৈরি করুন সুস্বাদু পায়েস         ১০ বছর পর সাউন্ডটেকে আসিফ, মডেল তানিয়া বৃষ্টি         নেপালের ৪১তম প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা         শিশুদের স্বাস্থ্যসেবায় ডিএসসিসিতে পাইলট প্রকল্প         ১৪ দলীয় জোটকে ক্ষমতায় আনার বিকল্প নেই : এম এ আউয়াল         প্রিমিয়ার লিগে খুব একটা ভালো অবস্থানে নেই আর্সেনাল। বর্তমানে তাদের অবস্থান ছয়ে। তবে ইউরোপা লিগের রাউন্ড অব ৩২ এর প্রথম লেগে বড় জয় পেয়েছে দলটি। সুইডেনের ক্লাব অস্টেরসান্ডসকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ওয়েঙ্গারের শিষ্যরা। প্রতিপক্ষের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে খেলতে থাকে আর্সেনাল। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ১৩ মিনিটেই এগিয়ে যায় দলটি। ডানদিক থেকে অ্যালেক্স ওবির শট গোলরক্ষক ঠেকিয়ে দিলেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বল সহজেই জালে জড়ান নাচো মনোরেল। ম্যাচের ২৪ মিনিটে আত্মঘাতী গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ হয় দলটির। মিখতিরিয়ানের শট ক্লিয়ার করতে গিয়ে বল জালে জড়ান স্বাগতিক দলের সোটিরিস। বিরতি থেকে ফিরে ব্যবধান ৩-০ করেন ওজিল। ম্যাচের ৫৮ মিনিটে ডানদিক থেকে মিখতিরিয়ানের বাড়ানো বল জালে জড়ান জার্মান এই তারকা। বাকি সময় আর গোল না হলে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে গানাররা। এদিকে দিনের অন্য ম্যাচে এফসি কোপেনহেগেনকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। আর নিজেদের মাঠে ক্লাব লিপজিগের কাছে ৩-১ ব্যবধানে হেরে গেছে নাপোলি।         ইউরোপা লিগে আর্সেনালের বড় জয়         আইপিএলের পূর্ণাঙ্গ সূচি প্রকাশ         ‘বোলিং নিয়ে আমাদের আরও কাজ করতে হবে’         বেসরকারি মেডিকেল কলেজ নীতিমালা সংশোধনের দাবি         সুস্থ থাকতে টিটক্স         যৌথ প্রযোজনার নতুন চলচ্চিত্রের ঘোষণা         টি-টোয়েন্টিতে প্রথম হাফসেঞ্চুরি সৌম্যর        
প্রকাশিত হয়েছে : 5:58:08,অপরাহ্ন 03 February 2018 |

শরণার্থীদের হুমকি মনে করে জার্মানরা?

গেল দু’বছরে জার্মান নাগরিকদের বন্দুক কেনার প্রবণতা কয়েকগুণ বেড়েছে। সম্প্রতি একটি সমীক্ষা থেকে এই তথ্য মিলেছে। ডয়েচে ভেলের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে।

 

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশেষজ্ঞরা সমীক্ষা চালিয়ে দেখেছেন, প্রায় ২৩ শতাংশ জার্মান মনে করছেন দেশে নিরাপত্তার অবস্থা খুব খারাপ। যদিও একটা বড় অংশের মানুষই মনে করছেন নিরাপত্তার কোনো সমস্যা নেই জার্মানিতে৷

 

২০১৫ সালে যেখানে বন্দুক বিক্রির পরিমাণ ছিল ৩ লাখ ১ হাজারের মতো ২০১৭ সালে সেখানে ৫ লাখ ৫৭ হাজারের মতো বন্দুক বিক্রি হয়েছে। ভবিষ্যতে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

 

 

বন্দুক ছাড়াও বেড়েছে গ্যাস স্প্রে এবং নানারকম আত্মরক্ষার সরঞ্জামের বিক্রিও। একইসঙ্গে তাইকোয়ান্দো, কারাতের মতো ক্লাসেও যাওয়া বেড়েছে জার্মানদের।

 

স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে কেন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন জার্মানরা। এর জবাবে অনেকে বলছেন, শরণার্থী এবং বিদেশিদের ভয় পাচ্ছে জার্মানরা ৷ শরণার্থী অধ্যুষিত কোনো কোনো এলাকায় বিকেলের পর তারা যান না।

 

ডয়েচে ভেলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বস্তুত, গত দু’বছরে জার্মানিতে শরণার্থীর সংখ্যা বেড়েছে। বন্দুক বিক্রির পরিমাণও বেড়েছে চক্রবৃদ্ধিহারে। ফলে বিশেষজ্ঞরা ধরেই নিচ্ছেন, শরণার্থীদেরই জার্মান নাগরিকদের একটি বড় অংশ হুমকি হিসেবে দেখছেন। আর এর ফলে পরিস্থিতি আরও জটিল হবে বলেই তাদের ধারণা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*