শেষ হলো ভোটগ্রহণ, ফলাফলের অপেক্ষা

দিনভর নানা উত্তেজনা আর বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্যদিয়ে শেষ হলো সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নির্বচনের ভোট গ্রহণ। সোমবার (৩০ জুলাই) সকাল ৮ টা থেকে সকল কেন্দ্রে একযুগে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত।

 

টানা ৮ ঘন্টার এ ভোটগ্রহণে ১৩৪ টি কেন্দ্রের মধ্যে কয়েকটি কেন্দ্র দখল ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলেও বাকি সকল কেন্দ্রেই হয়েছে শান্তিপূর্ণ ভোট। অধিকাংশ কেন্দ্রেই ভোটাররা শান্তিপূর্ণভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

 

নির্বাচনে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ২টি কেন্দ্রে ব্যালট ছিনতাইয়ের অভিযোগে ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকলেও বাকি ১৩২টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। স্থগিত হওয়া কেন্দ্র ২টি হলো- ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের শাহগাজী সৈয়দ বোরহান উদ্দিন (রহ.) মাদ্রাসা (১১৬) ও ২৭ নং ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৩৪)।

 

এর আগে সকালে কাজি জালাল উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রায়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বখতিয়ার বিবি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাঠানটুলা জামেয়া, দরগাহ গেট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ কয়েকটি কেন্দ্রে ছাত্রলীগের দখল এবং পুলিশের সাথে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেলেও বাকি প্রায় সকল কেন্দ্রেই হয়েছে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন।

 

এদিকে বিএনপি প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর অভিযোগ মোট ৪৭ টি কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দিয়েছে আওয়ামী লীগের কর্মীরা। সোমবার দুপুরে কেন্দ্র দখল ও জাল ভোটসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলিমুজ্জামানের কাছে নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচনের দাবি করেছিলেন ধানের শীষের এ মেয়র প্রার্থী।

 

নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত মেয়র পদে ৬জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬২ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১২৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ৮০ কেন্দ্রকেই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.