Tue. Nov 19th, 2019

BANGLANEWSUS.COM

-ONLINE PORTAL

সম্পর্ক উন্নয়ন করতে আমিরাতের প্রিন্সকে ইমরানের আহ্বান

1 min read

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করার সম্ভাবনা পর্যালোচনা করার জন্য আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদকে আহ্বান জানিয়েছেন।

 

বৃহস্পতিবার পাক প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানিয়েছেন বলে পাকিস্তানের প্রভাবশালী গণমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন শুক্রবার এ তথ্য জানায়।

 

দুই নেতা সাম্প্রতিক আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সম্পর্কের বিষয়ে নিজেদের মতামত শেয়ার করেছেন।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা এবং স্থিতিশীলতা জোরদার করতে দুই দেশকে অবশ্যই চেষ্টা করতে হবে বলে তারা একমত পোষণ করেন।

 

এদিকে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি সৌদি আরব ও দ. কোরিয়ার তার সমকক্ষদের সঙ্গে কাশ্মীর পরিস্থিতি অবহিত করেছেন।

 

কাশ্মীরে মানবাধিকার লংঘনের ঘটনায় দ. কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কং কিউং-ওয়া উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

 

তিনি বলেন, কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। দক্ষিণ কোরিয়া মানবাধিকার ও আইনের শাসনকে সমর্থন করে।

 

এর আগে কাশ্মীর বিতর্কের মধ্যেই সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। আমিরাতের সঙ্গে বন্ধুত্ব অটুট রাখার জন্য মোদিকে এই বিশেষ সম্মাননা দেয়া হয়েছে।

 

সর্বোচ্চ সম্মনা হিসেবে ‘অর্ডার অফ জায়েদ’ ও সোনার মেডেল দেয়া হয় আমিরাতের পক্ষ থেকে। মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম প্রভাবশালী দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের এটিই সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা।

 

এরপরই আমিরাতের সমালোচনায় জড়িয়ে পরে পাকিস্তান। পরে অবশ্য পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি জানিয়েছেন, এটি দুই দেশের নিজস্ব বিনিয়োগের বিষয়। পাকিস্তান কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অবহিত করবে।

 

২০১৮ সালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে এই সম্মাননা দেয়া হয়েছিল। এর আগে ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফ, ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ এবং ইরিত্রিয়ার প্রেসিডেন্ট ইসাইয়াস আফওয়েরকি ‘অর্ডার অফ জায়েদ’ পেয়েছিলেন।

Copyright © Banglanewsus.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.