সাশ্রয়ী মূল্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন

প্রকাশিত:সোমবার, ০৯ ডিসে ২০১৯ ০১:১২

সাশ্রয়ী মূল্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন

সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করতে বায়োমেট্রিক হাজিরা সিস্টেম চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ২৬ জুন এক চিঠিতে প্রতিটি বিদ্যালয়ে ডিজিটাল হাজিরা মেশিন স্থাপনের নির্দেশনা দেওয়া হয়। নির্দেশনায় বলা হয়, স্কুলের সরকারি ফান্ড থেকে স্কুল পরিচালনা কমিটি মেশিন কিনবে।

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য কম টাকায় উন্নতমানের বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে সিস্টেমআই টেকনোলজিস লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি গত ৭ বছর ধরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল হাজিরা বা বায়োমেট্রিক অ্যাটেনডেন্স সল্যুশন দিচ্ছে।

 

 

সাশ্রয়ী মূল্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন

সাশ্রয়ী মূল্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন
ছবি: সংগৃহীত

সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করতে বায়োমেট্রিক হাজিরা সিস্টেম চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ২৬ জুন এক চিঠিতে প্রতিটি বিদ্যালয়ে ডিজিটাল হাজিরা মেশিন স্থাপনের নির্দেশনা দেওয়া হয়। নির্দেশনায় বলা হয়, স্কুলের সরকারি ফান্ড থেকে স্কুল পরিচালনা কমিটি মেশিন কিনবে।

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য কম টাকায় উন্নতমানের বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে সিস্টেমআই টেকনোলজিস লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি গত ৭ বছর ধরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল হাজিরা বা বায়োমেট্রিক অ্যাটেনডেন্স সল্যুশন দিচ্ছে।

সমপ্রতি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে দেশের সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডিজিটাল হাজিরা ডিভাইস স্থাপন করার উদ্যোগ নিলে এ ব্যাপারে জোরাল উদ্যোগ নেয় সিস্টেমআই টেকনোলজিস লিমিটেড। মন্ত্রণালয় অনুমোদিত টেকনিক্যাল সেপসিফিকেশন ঠিক রেখে কয়েকটি র্ব্যান্ডের গুণগতমান সমপন্ন ডিভাইস নিয়ে প্যাকেজ ছাড়া হয়েছে।সেপসিফিকেশনে প্রতিটি মেশিনে রয়েছে অত্যাধুনিক ফিঙ্গারপ্রিন্ট সনাক্তকরণ প্রযুক্তি যা পাঁচ হাজার মানুষের হাতের ছাপ সংরক্ষণ করতে সক্ষম। প্রতিটি ডিভাইস অনলাইনে নিয়ন্ত্রণ করা যবে। ইন্টারনেটের জন্য সাধারণ ব্রডর্ব্যান্ড লাইন ছাড়াও ওয়াইফাই, জিপিআরএস বা থ্রিজি সিম ব্যবহার করে রিপোর্ট দেখা এবং কেন্দ্রিয়ভাবে সার্ভারে ডাটা সংরক্ষণ করা যাবে।

ডিভাইসটিতে একবার চার্জ দিলে ৪-৫ ঘন্টা বিদ্যুত্ ছাড়া চলবে। ইউএসবি ইন্টারফেসের মাধ্যমে যুক্ত হয়েও ডিভাইসগুলো তথ্য আদান-প্রদান করতে পারে। সিস্টেমআই ডিভাইসগুলোতে তিন বছরের ওয়ারেন্টি প্রদান করছে। সরাসরি ঢাকার নিকেতন অফিস বা সারাদেশ থেকে ডিভাইসটি ডেলিভারি নেওয়া যাবে।

এই সংবাদটি 1,225 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •