সিরাজগঞ্জে পঞ্চম দফা পানি বৃদ্ধি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টে ২০২০ ১২:০৯

সিরাজগঞ্জে পঞ্চম দফা পানি বৃদ্ধি

মাহবুব চৌধুরী, সিরাজগঞ্জ :

গত তিনদিনে যমুনা নদীর সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে পানি বেড়েছে ৭৩ সেন্টিমিটার । দ্রুত গতিতে যমুনার পানি বাড়ার কারণে ভাঙনের তীব্রতাও বেড়েছে। বিলীন হয়ে যাচ্ছে বাড়িঘর, কৃষি জমিসহ বিভিন্ন স্থাপনা। শনিবার সকালে বাঁধের মাথায় থাকা জামে মসজিদটিও সম্পূর্ণরূপে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

সদর উপজেলার পাঁচ ঠাকুরী এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বন্যার শুরু থেকেই এ অঞ্চলে নদীভাঙন শুরু হয়েছে। বিশেষ করে সিমলা এলাকায় পাউবোর স্পার বাঁধটি নদীতে বিলীন হওয়ার ফলে নদীভাঙন অব্যাহত ছিল। গত কয়েকদিন ধরে দ্রুতগতিতে যমুনায় পানি বাড়ার ফলে ভাঙনের তীব্রতা আরও বেড়ে গেছে।
এর আগে ২৪-২৫ জুলাই ভয়াবহ ভাঙনে ৩ শতাধিক ঘরবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। যেভাবে ভাঙন চলছে তাতে আতঙ্কে মধ্যে রয়েছে পাঁচ ঠাকুরী, ভাটপিয়ার, পার পাচিলসহ কয়েকটি গ্রামের সহস্রাধিক মানুষ। ইতোমধ্যে নদীভাঙনে এ অঞ্চলের প্রায় শতাধিক পরিবার নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। আড়াইশোর উপরে মানুষ ঘরবাড়ি সরিয়ে বাঁধের উপর কিংবা আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।

তারা আরও বলেন, এর আগে সিমলা ক্রসবারটি নদীগর্ভে চলে যাওয়ার পরও এ এলাকার মানুষ আতঙ্কে রয়েছে। ভাঙন কবলিত মানুষগুলো এখনো বাঁধের ওপর মানবেতর জীবনযাপন করছে। এরপরও পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোকজন জরুরি ভিত্তিতে ভাঙন ঠেকাতে বালিভর্তি জিওব্যাগ ডাম্পিং করে আসছে। কিন্তু কোনো কিছুতেই ভাঙন থামানো যাচ্ছে না। ভাঙনের মুখে থাকা মানুষগুলো ধীরে ধীরে তাদের বাড়িঘর সরিয়ে নিচ্ছে।

এই সংবাদটি 1,227 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •