Sat. Jul 20th, 2019

BANGLANEWSUS.COM

-ONLINE PORTAL

সিলেটে প্রথম দিন শেষে কারা এগিয়ে থাকল?

দুই ম্যাচ সিরিজের ফার্স্ট টেস্টের প্রথম দিন শেষে দলীয় স্কোর বোর্ডে ২৩৬ রান তুলেছে জিম্বাবুয়ে। এ রানে প্রতিপক্ষের ৫ উইকেট শিকার করেছে বাংলাদেশ। ফলে বড় স্কোর গড়ার সুযোগ আছে সফরকারীদের। বাকিটা নির্ভর করছে টেলএন্ডারদের ওপর।

আবার টপঅর্ডারের ৫ উইকেট তুলে নেয়ায় রোডেশিয়ানদের আর কিছু রানের মধ্যে গুটিয়ে দেয়ার সম্ভাবনাও আছে টাইগারদের। এদিন খেলা হয়েছে মোট ৯১ ওভার। তিন সেশনই সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। সব মিলিয়ে দিন শেষে দুই দলই সমানে সমান। সর্বোপরি, একদল এগিয়ে থাকল তা বলা যাবে না! তবুও সার্বিক বিচারের দায়িত্বটা ক্রিকেটসংশ্লিষ্টদের হাতে ছেড়ে দেয়া হলো।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা শুভ করতে আপ্রাণ চেষ্টা করে জিম্বাবুয়ে। ব্রায়ান চারিকে নিয়ে শুভসূচনার চেষ্টা করেন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। তবে তাদের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ান তাইজুল ইসলাম। চারিকে সরাসরি বোল্ড করে বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেন তিনি। দ্বিতীয় সাফল্য পেতেও বিলম্ব হয়নি টাইগারদের। আবারো শিকারী সেই তাইজুল। দুর্দান্ত ডেলিভেরিতে অভিজ্ঞ ব্রেন্ডন টেইলরকে শর্ট লেগে নাজমুল হোসেন শান্তর তালুবন্দি করে ফেরান তিনি।

চারি ও টেইলর দ্রুত ফিরলেও একপ্রান্ত আগলে থেকে যান মাসাকাদজা। বলের গুণাগুণ বজায় রেখে ব্যাট চালান তিনি। তাকে সঙ্গ দেন ইনফর্ম শন উইলিয়ামস। তাতে এগোতে থাকে জিম্বাবুয়ে। একপর্যায়ে ক্যারিয়ারে অষ্টম টেস্ট ফিফটি তুলে বাংলাদেশকে চোখ রাঙাতে থাকেন অধিনায়ক। সেই চোখ রাঙানি থামান আবু জায়েদ। লাঞ্চ বিরতির পরপরই এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে তাকে ফেরান তিনি। ফেরার আগে ১০৫ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৫২ রান করেন মাসাকাদজা।

এতে চাপে পড়ে জিম্বাবুয়ে। তবে সেই চাপ আমলে না নিয়ে উইলিয়ামসকে যথার্থ সঙ্গ দেয়ার চেষ্টা করেন সিকান্দার রাজা। কিন্তু তার যাত্রাটা দীর্ঘায়িত হয়নি। তাকে ছোবল মারেন নাজমুল ইসলাম অপু। তাতে নীল হয়ে সাজঘরে ফেরেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এ ক্রিকেটার। ফের সেই চিরচেনা দৃশ্যের অবতারণা। রাজা শিকার করেই নাগিন ড্যান্স দেন অপু। তাতে শামিল হন সতীর্থরা। উল্লাসে ফেটে পড়েন গ্যালারির দর্শকরা।

প্রথমদিকে রান তোলার পথটা দেখিয়েছিলেন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। কিন্তু ফিফটি করেই ফেরেন তিনি। পরে তার দেখানো পথ ধরে সেঞ্চুরির দিকে হাঁটছিলেন শন উইলিয়ামস। দারুণ খেলছিলেন তিনি। তবে শেষ পর্যন্ত হার মানেন বাঁহাতি ব্যাটারও। তিন অংকের ম্যাজিক ফিগার ছোঁয়া থেকে মাত্র ১২ রান দূরে থাকতে আউট হন তিনি। পার্টটাইমার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বলে স্লিপে নাজমুল হোসেনকে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে ১৭৩ বলে ৯ চারে ৮৮ রানের লড়াকু ইনিংস খেলেন উইলিয়ামস। তিনি ফিরলেও বড় স্কোরের ভিত যায় জিম্বাবুয়ে।

দেশের অষ্টম এবং বিশ্বের ১১৬তম ভেন্যু হিসেবে টেস্ট অভিষেক হয়েছে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের। এ উপলক্ষে পাঁচ মিনিট ঘণ্টা বাজিয়ে শুরু হয় খেলা। ঘণ্টা বাজান বাংলাদেশ সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান। ঐতিহ্যের ধারক এ ঘণ্টা বাজানোর সঙ্গে সঙ্গে মাঠে গড়ায় খেলা। ঘণ্টাধ্বনিতে উৎসবে মাতে ১৮ হাজার দর্শক।

ভেন্যুর অভিষেক স্মরণীয় করে রাখতে বিশেষ স্মারক মুদ্রায় টস করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে ভাগ্যকে পাশে পাননি তিনি। জেতেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। টস জিতে আগে ব্যাটিং নেন তিনি। খেলা শুরু হয় বেলা ১০টায়।

একদিকে টিলা, আরেকদিকে চায়ের বাগান, মাঝখানে দৃষ্টিনন্দন স্টেডিয়াম। নয়নাভিরাম এ মাঠে টাইগারদের হয়ে অভিষেক হয়েছে পেস অলরাউন্ডার আরিফুল হক এবং বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুর। জিম্বাবুয়ের হয়ে অভিষেক হয়েছে ব্রেন্ডন মাভুতা এবং বাঁহাতি স্পিনার ওয়েলিংটন মাসাকাদজার।

 

Copyright © Banglanewsus.com All rights reserved. | Developed By by Mediaitbd.com.

Developed By Mediait