Fri. Nov 22nd, 2019

BANGLANEWSUS.COM

-ONLINE PORTAL

সোনার বাংলা গড়তে রোটারেক্টদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে: নেছার আহমদ এম পি

স্টাফ রিপোর্ট :

 

মৌলভীবাজারে  রোটারেক্ট ডিস্ট্রিক্ট অর্গানাইজেশন ৩২৮২ অভিষেক অনুষ্ঠান উদযাপিত হয়েছে। শুক্রবার ( ১৩ সেপ্টেম্বর) চায়ের রাজধানী খ্যাত  মৌলভীবাজারের  সরকারি কলেজ শহীদ জিয়া অডিটোরিয়ামে প্রথমবারের আয়োজিত   জাঁকজমকপূর্ণ  এ  অনুষ্ঠানে  বিশ্বের সর্ববৃহৎ যুব সংগঠন রোটারেক্ট ডিস্ট্রিক্ট অর্গানাইজেশন বাংলাদেশের এর ডি আর আর আহাদ   এবং রোটারেক্ট জেলার সকল ডিস্ট্রিক্ট অফিসিয়াল অভিষেক অনুষ্ঠান হয়।

 

 

 

 

 

রোটারেক্ট ক্লাব অব মৌলভীবাজার গভমেন্ট কলেজের স্বাগতিকতায়  রোটারেক্ট পিপি ওবায়দুর রহমানের সভাপতিত্বে, উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার ৩ আসনের  সংসদ সদস্য  নেছার আহমদ।

 

 

 

 

 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিস্ট্রিক্ট রোটারেক্ট কমিটির চেয়ারম্যান রোটারিয়ান জনাব মাসুদ আহমদ চৌধুরি মাকুম, ডি আর আর আব্দুল আহাদ কে প্রথমে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি  কলার পরিয়ে ডি আর আর হিসেবে বরণ করে নেন।

 

 

 

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন মৌলভীবাজারে প্রথমবারের মতো রোটারি যুব সংগঠনের এত বড় মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হওয়ায় আমি খুবই আনন্দিত । তিনি রোটারেক্টদের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন  বলেন বর্তমান বিশ্বের প্রেক্ষাপটে যুব সমাজকে ভালো কাজের দিকে এগিয়ে নিতে রোটারেক্ট সংগঠন অগ্রণী ভূমিকা পালন করে  আসছে।  সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ চাই আর এই সোনার মানুষ এবং নেতৃত্ব সৃষ্টি করতে একমাত্র রোটারেক্ট সংগঠনই দায়িত্ব নিতে পারে।

 

 

 

 

 

ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর এম আতাউর রহমান পীর, ঢাকায় অবস্থান করায় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে না পেরে এক ভিডিও বার্তার মাধ্যমে বক্তব্য দেন তিনি তার বক্তব্যে রোটারেক্টদেরকে ভালোভাবে সুশৃংখলভাবে কাজ করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন। এবং নিজ নিজ ব্যক্তিত্ব বিকাশের পাশাপাশি সমাজের মানুষের জন্য ভালো কাজ করার আহ্বান জানান । এবং অভিষিক্ত ডি আর আর এবং ডিস্ট্রিক্ট অফিশিয়াল বৃন্দকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন  করেন।

 

 

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ডিআরসিসি বলেন, প্রতিটি রোটারেক্ট আমার সন্তানতুল্য আমি অভিভাবক হিসেবে প্রতিটি রোটারেক্ট এর কাছ থেকে সেই রকম আচার ব্যবহার ভালো কাজ আশা করি এবং আমি বিশ্বাস করি রোটারেক্টরাই পারবে অবহেলিত বঞ্চিত দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে।

 

 

 

 

 

রোটারেক্টরা তাদের নিয়ম শৃঙ্খলার মধ্যে থেকে রোটারেক্ট আন্দোলন চালিয়ে যাবে এই অশা করি। রোটারেক্ট  মুভমেন্ট কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য যত ধরনের সহযোগিতা প্রয়োজন ডিআরসিসি হিসেবে আমি তা প্রদান করবো।  তিনি প্রোগ্রাম চেয়ারম্যান কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং মৌলভীবাজার গভমেন্ট কলেজ , তাদের অভিভাবক ক্লাবের প্রতিও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

 

 

 

 

 

 

 

বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে আগত রোটারেক্ট ৩২৮২ থেকে আগত সকল রোটারেক্টদের প্রতিও তিনি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। ডিআরআর আব্দুল আহাদ পরবর্তীতে তার ডিস্ট্রিক্ট পরিচালনার সকল অফিসিয়াল বৃন্দ কে পরিচয় করিয়ে দেন।

 

 

 

উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, এসিস্ট্যান্ট গভর্নর পিডি আর আর এডভোকেট হুসাইন আহমদ শিপন, প্রোগ্রাম চিপ অ্যাডভাইজার রোটাঃ পিডিআর আসা জুনেদ আলী, রোটাঃ পিডিআর আর জিয়াউদ্দিন হায়দার শাকিল, ডিস্ট্রিক্ট ইন্টারেক্ট কমিটির চেয়ারম্যান রোটাঃ কয়েস আহমদ সুমন,

 

 

 

 

 

মৌলভীবাজার সেন্ট্রাল এর প্রেসিডেন্ট রোটাঃহোমায়েদ আলি শাহিন এবং আর সিসি রোটাঃ জুনেদ আহমেদ খান , মৌলভীবাজার মিডটাউন এর আরসিসি রোটাঃ সুয়েব আহমদ,রোটাঃ পিডি আর আর মাসুমুল আলম, আর আইডি ৩২৮২, ডি আর আর আবু বক্কর সিদ্দিক রুপম, ডি আর আর আর ইলেক্ট কাউসার আহমেদ রুবেল প্রমুখ।

 

পরবর্তীতে ডি আর আর আহাদ ধন্যবাদ প্রস্তাব এবং মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি  ঘোষণা করা হয়।

Copyright © Banglanewsus.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.